ঢাকা ০৮:৩৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে জমি রেজিস্ট্রির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ: স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কারাগারে

মাহবুব আলম আরিফ:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় জমি রেজিস্ট্রি না করে দিয়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আতিকুর রহমান হেলাল (৩৮) কে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। অভিযুক্ত আতিকুর রহমান হেলাল (৩৮) সাবেক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভপতি ও মুরাদনগর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লিখক।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ২ ডিসেম্বর উপজেলার দারোরা গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে কামাল হোসেনের ২০ শতক জমি কবরস্থানের নামে রেজিস্ট্রি করে দিতে আতিকুর রহমান হেলাল তার কাছ থেকে ২৮ হাজার টাকা নেন। পরবর্তীতে জমি রেজিস্ট্রি না করে বিভিন্ন অযুহাতে সময় নিতে থাকে। পরে গত ৫ জানুয়ারী আতিকুর রহমান হেলাল তার অফিসে ডেকে কাগজ পত্রের অযুহাত দেখিয়ে কামাল হোসেনকে বলেন জমি রেজিস্ট্রি করা যাবে না। তখন কামাল হোসেন তার দেয়া ২৮ হাজার টাকা দাবি করলে হেলাল ও তার অফিসে থাকা লোকজন কামাল হোসেন ও তার মাকে ব্যধক মারধর করেন।

এ ঘটনায় কামাল হোসেন বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার সকালে আতিকুর রহমান হেলালকে আসামী করে মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন, টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বৃহস্পতিবার দুপুরে আতিকুর রহমান হেলালকে আটক করা হয়েছে। পাশাপশি তার সাথে থাকা কাগজপত্র বিহিন একটি মটর সাইকেল জব্দ করা হয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

মুরাদনগরে জমি রেজিস্ট্রির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ: স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কারাগারে

আপডেট সময় ০২:৩৩:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২০

মাহবুব আলম আরিফ:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় জমি রেজিস্ট্রি না করে দিয়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আতিকুর রহমান হেলাল (৩৮) কে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। অভিযুক্ত আতিকুর রহমান হেলাল (৩৮) সাবেক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভপতি ও মুরাদনগর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লিখক।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ২ ডিসেম্বর উপজেলার দারোরা গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে কামাল হোসেনের ২০ শতক জমি কবরস্থানের নামে রেজিস্ট্রি করে দিতে আতিকুর রহমান হেলাল তার কাছ থেকে ২৮ হাজার টাকা নেন। পরবর্তীতে জমি রেজিস্ট্রি না করে বিভিন্ন অযুহাতে সময় নিতে থাকে। পরে গত ৫ জানুয়ারী আতিকুর রহমান হেলাল তার অফিসে ডেকে কাগজ পত্রের অযুহাত দেখিয়ে কামাল হোসেনকে বলেন জমি রেজিস্ট্রি করা যাবে না। তখন কামাল হোসেন তার দেয়া ২৮ হাজার টাকা দাবি করলে হেলাল ও তার অফিসে থাকা লোকজন কামাল হোসেন ও তার মাকে ব্যধক মারধর করেন।

এ ঘটনায় কামাল হোসেন বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার সকালে আতিকুর রহমান হেলালকে আসামী করে মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন, টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বৃহস্পতিবার দুপুরে আতিকুর রহমান হেলালকে আটক করা হয়েছে। পাশাপশি তার সাথে থাকা কাগজপত্র বিহিন একটি মটর সাইকেল জব্দ করা হয়েছে।