ঢাকা ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে নিখোঁজের দুদিন পর গোমতী নদী থেকে মাঝির লাশ উদ্ধার

মো. নাজিম উদ্দিন, মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার গোমতী নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়ার দুদিন পর সাদ্দাম হোসেন (৩০) নামের এক ট্রলারের মাঝির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গ্রামের গোদারাঘাট এলাকা থেকে মাঝির লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিহত মাঝি সাদ্দাম হোসেন চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার রহমতাবাদ গ্রামের মৃত জেবাল হকের ছেলে।

জানা যায়, মাঝি সাদ্দাম হোসেন জেলার দাউদকান্দি থেকে বালুবাহী ট্রলার নিয়ে গোমতী নদী দিয়ে উপজেলার কোম্পানীগঞ্জে বালু নামিয়ে দাউদকান্দি ফেরার পথে সোমবার রাত ৮টা ৪৫মিনিটে জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গোদারাঘাটে নৌকা পারাপারের জন্য বেধে রাখা রশিতে আটকে চলন্ত ট্রলার থেকে নদীতে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। ট্রলারে থাকা শ্রমিকরা ঘটনাটি টের পেয়ে অনেক খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান পায়নি। বুধবার মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষ চাঁদপুর থেকে ডুবুরি দল এনে ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালায়। চার সদস্যের ডুবুরিদল ২ঘন্টা অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ মাঝি সাদ্দাম হোসেনের লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের বড় ভাই আনোয়ার হোসেন বলেন আমার ছোট ভাই সাদ্দাম ৫বছর ধরে বালুর ট্রলারে কাজ করে। তার সাড়ে তিন বছর ও দেড় বছরের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বর্তমানে তার স্ত্রী ৭মাসের অন্তঃসত্তা। আগামী ১০তারিখ তার বাড়ী যাওয়ার কথা ছিলো কিন্তু তার আগেই আমার ভাই সবাইকে কাদিয়ে তার আসল বাড়ীতে চলে গেলো।

এব্যাপারে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ময়নাতদন্তের কুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে। এঘটনায় দন্ডবিধির ২৮০ ধারায় নৌ দুঘটনার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

মুরাদনগরে নিখোঁজের দুদিন পর গোমতী নদী থেকে মাঝির লাশ উদ্ধার

আপডেট সময় ০৫:২১:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ ডিসেম্বর ২০১৯

মো. নাজিম উদ্দিন, মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার গোমতী নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়ার দুদিন পর সাদ্দাম হোসেন (৩০) নামের এক ট্রলারের মাঝির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গ্রামের গোদারাঘাট এলাকা থেকে মাঝির লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিহত মাঝি সাদ্দাম হোসেন চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার রহমতাবাদ গ্রামের মৃত জেবাল হকের ছেলে।

জানা যায়, মাঝি সাদ্দাম হোসেন জেলার দাউদকান্দি থেকে বালুবাহী ট্রলার নিয়ে গোমতী নদী দিয়ে উপজেলার কোম্পানীগঞ্জে বালু নামিয়ে দাউদকান্দি ফেরার পথে সোমবার রাত ৮টা ৪৫মিনিটে জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গোদারাঘাটে নৌকা পারাপারের জন্য বেধে রাখা রশিতে আটকে চলন্ত ট্রলার থেকে নদীতে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। ট্রলারে থাকা শ্রমিকরা ঘটনাটি টের পেয়ে অনেক খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান পায়নি। বুধবার মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষ চাঁদপুর থেকে ডুবুরি দল এনে ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালায়। চার সদস্যের ডুবুরিদল ২ঘন্টা অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ মাঝি সাদ্দাম হোসেনের লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের বড় ভাই আনোয়ার হোসেন বলেন আমার ছোট ভাই সাদ্দাম ৫বছর ধরে বালুর ট্রলারে কাজ করে। তার সাড়ে তিন বছর ও দেড় বছরের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বর্তমানে তার স্ত্রী ৭মাসের অন্তঃসত্তা। আগামী ১০তারিখ তার বাড়ী যাওয়ার কথা ছিলো কিন্তু তার আগেই আমার ভাই সবাইকে কাদিয়ে তার আসল বাড়ীতে চলে গেলো।

এব্যাপারে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ময়নাতদন্তের কুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে। এঘটনায় দন্ডবিধির ২৮০ ধারায় নৌ দুঘটনার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।