ঢাকা ০৮:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে পুকুরে বিষ দিয়ে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন

শামীম আহম্মেদ, মুরাদনগর :

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের মোচাগড়া গ্রামে দুর্বৃত্তরা একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে ভূক্তভোগী মনির হোসেন থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, মোচাগড়া গ্রামের মনির হোসেন মধ্যপাড়ার ভুইয়া বাড়ীর একটি পুকুর লিজ নিয়ে প্রায় ৩/৪ লাখ টাকা ব্যয়ে রুই, কাতলা, তেলাপিয়া ও সিলভার কার্পসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছে। মাছগুলো কিছুদিন পরেই বিক্রি করতে পারতো।

বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কারা তাঁর একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। শুক্রবার সকালে সব মাছ মরে ভেসে ওঠে। তাঁর হিসাব অনুযায়ী দুর্বৃত্তরা ৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে।

উক্ত ঘটনায় পুকুরের মালিক মনির হোসেন ওই এলাকার মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে মোমেন মিয়া, রোশন মিয়ার ছেলে জাকির মিয়া, মৃত পচা মিয়ার ছেলে কাদির ভুইয়াসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৫/৬ জনকে দায়ী করে শুক্রবার বিকেলে মুরাদনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। মোচাগড়া গ্রামের নজরুল ইসলাম ভুইয়া, সেলিম মিয়া ও আমির হোসেন জানান, দীর্ঘদিন যাবত মাছ চাষ করে মনির হোসেন জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। এক সপ্তাহ পর তার মাছগুলো বিক্রি করার কথা ছিল। তখন মনির হোসেনের লাভসহ খরচের সব টাকা চলে আসতো। মনে হয় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে এ ক্ষতি করেছে।

মুরাদনগর থানার ওসি এ.কে.এম মনজুর আলম জানান, মাছ নিধনের ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগরে পুকুরে বিষ দিয়ে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন

আপডেট সময় ০৬:৩৭:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯
শামীম আহম্মেদ, মুরাদনগর :

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের মোচাগড়া গ্রামে দুর্বৃত্তরা একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে ভূক্তভোগী মনির হোসেন থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, মোচাগড়া গ্রামের মনির হোসেন মধ্যপাড়ার ভুইয়া বাড়ীর একটি পুকুর লিজ নিয়ে প্রায় ৩/৪ লাখ টাকা ব্যয়ে রুই, কাতলা, তেলাপিয়া ও সিলভার কার্পসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছে। মাছগুলো কিছুদিন পরেই বিক্রি করতে পারতো।

বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কারা তাঁর একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। শুক্রবার সকালে সব মাছ মরে ভেসে ওঠে। তাঁর হিসাব অনুযায়ী দুর্বৃত্তরা ৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে।

উক্ত ঘটনায় পুকুরের মালিক মনির হোসেন ওই এলাকার মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে মোমেন মিয়া, রোশন মিয়ার ছেলে জাকির মিয়া, মৃত পচা মিয়ার ছেলে কাদির ভুইয়াসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৫/৬ জনকে দায়ী করে শুক্রবার বিকেলে মুরাদনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। মোচাগড়া গ্রামের নজরুল ইসলাম ভুইয়া, সেলিম মিয়া ও আমির হোসেন জানান, দীর্ঘদিন যাবত মাছ চাষ করে মনির হোসেন জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। এক সপ্তাহ পর তার মাছগুলো বিক্রি করার কথা ছিল। তখন মনির হোসেনের লাভসহ খরচের সব টাকা চলে আসতো। মনে হয় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে এ ক্ষতি করেছে।

মুরাদনগর থানার ওসি এ.কে.এম মনজুর আলম জানান, মাছ নিধনের ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।