ঢাকা ০৮:২৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা খুনের অভিযোগ

আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা মুরাদনগরে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা জাহানারা বেগম (২৭) ও ২ সন্তানের জননী খুন হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সন্ধ্যায় মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ঘাতক প্রেমিক।

নিহত জাহানারা বেগম(২৭) উপজেলার সদর ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের মৃত আলী আকবরের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার কৈজুরী গ্রামের মহিউদ্দিন করিমপুর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের মৃত আলী আকবরের মেয়ে দুই কন্যা সন্তানের জননী স্বামী পরিত্যক্তা জাহানারা বেগমকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে অবৈধ মেলামেশা শুরু করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে এক পর্যায়ে রোববার জাহানারা বেগম স্ত্রীর স্বীকৃতি আদায় করতে প্রেমিক মহিউদ্দিনের বাড়ীতে যায়। এরপর সে আর বাড়ী ফিরে আসেনি। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জাহানারার লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ঘাতক। পরে মুরাদনগর থানা পুলিশ জানতে পেরে এসআই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

নিহতের মা জমিলা বেগম জানান, তার মেয়ের শরীরের বিভিন্নস্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে এবং গোপনাঙ্গ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। এখন মহিউদ্দিন ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

এ বিষয়ে থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, লাশের ময়নাতদন্তের পর হত্যার কারণ জানা যাবে। ঘাতক গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা খুনের অভিযোগ

আপডেট সময় ০২:৫৮:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬
আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা মুরাদনগরে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা জাহানারা বেগম (২৭) ও ২ সন্তানের জননী খুন হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সন্ধ্যায় মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ঘাতক প্রেমিক।

নিহত জাহানারা বেগম(২৭) উপজেলার সদর ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের মৃত আলী আকবরের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার কৈজুরী গ্রামের মহিউদ্দিন করিমপুর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের মৃত আলী আকবরের মেয়ে দুই কন্যা সন্তানের জননী স্বামী পরিত্যক্তা জাহানারা বেগমকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে অবৈধ মেলামেশা শুরু করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে এক পর্যায়ে রোববার জাহানারা বেগম স্ত্রীর স্বীকৃতি আদায় করতে প্রেমিক মহিউদ্দিনের বাড়ীতে যায়। এরপর সে আর বাড়ী ফিরে আসেনি। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জাহানারার লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ঘাতক। পরে মুরাদনগর থানা পুলিশ জানতে পেরে এসআই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

নিহতের মা জমিলা বেগম জানান, তার মেয়ের শরীরের বিভিন্নস্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে এবং গোপনাঙ্গ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। এখন মহিউদ্দিন ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

এ বিষয়ে থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, লাশের ময়নাতদন্তের পর হত্যার কারণ জানা যাবে। ঘাতক গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।