ঢাকা ০৯:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে বখাটে ও ইভটিজার বাবু ইয়াবাসহ গ্রেফতার

হাবীবুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর গ্রাম থেকে ২৫ পিছ ইয়াবাহসহ ফয়েজ আহমেদ বাবু (২৫) নামে এক যুবককে রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লার কেন্দ্রিয় কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। তার গ্রেফতারের খবর শুনে স্থানীয় লোকজনের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসে।

মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার হিসেবে খ্যাত বাবু চাপিতলা ইউনিয়নের পুস্কুরিনীরপাড় গ্রামের শাহআলম মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

জানা যায়, নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রাম থেকে ইয়াবার একটি চালান শ্রীকাইল যাচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই জীবন হাজারীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ শনিবার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ-নবীনগর সড়কের বাখরনগর গ্রামে অভিযান চালায়। তখন ফয়েজ আহমেদ বাবুকে সন্দেহ হলে তার দেহ তল্লাশি করে প্যান্টের পকেট থেকে ২৫ পিছ ইয়াবাহ উদ্ধার করে।  ঘটনার সময় আরো দুই মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে। পরে বাবুকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। রোববার দুপুরে ফয়েজ আহমেদ বাবুকে কুমিল্লার আদালতে সোপর্দ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এলাকাবাসী জানায়, গ্রেফতারকৃত ফয়েজ আহমেদ বাবু এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার হিসেবে চিহ্নিত। ছাত্রীরা স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে রীতিমতো সে উত্যক্ত করে আসছিল। তার অত্যাচারে ছাত্রীদের অভিভাবকরা অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেছিল। ভয়ে মুখ খোলাতো দুরের কথা কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। তারা মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার বাবুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে বখাটে ও ইভটিজার বাবু ইয়াবাসহ গ্রেফতার

আপডেট সময় ০৪:৫৩:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৭
হাবীবুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর গ্রাম থেকে ২৫ পিছ ইয়াবাহসহ ফয়েজ আহমেদ বাবু (২৫) নামে এক যুবককে রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লার কেন্দ্রিয় কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। তার গ্রেফতারের খবর শুনে স্থানীয় লোকজনের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসে।

মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার হিসেবে খ্যাত বাবু চাপিতলা ইউনিয়নের পুস্কুরিনীরপাড় গ্রামের শাহআলম মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

জানা যায়, নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রাম থেকে ইয়াবার একটি চালান শ্রীকাইল যাচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই জীবন হাজারীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ শনিবার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ-নবীনগর সড়কের বাখরনগর গ্রামে অভিযান চালায়। তখন ফয়েজ আহমেদ বাবুকে সন্দেহ হলে তার দেহ তল্লাশি করে প্যান্টের পকেট থেকে ২৫ পিছ ইয়াবাহ উদ্ধার করে।  ঘটনার সময় আরো দুই মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে। পরে বাবুকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। রোববার দুপুরে ফয়েজ আহমেদ বাবুকে কুমিল্লার আদালতে সোপর্দ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এলাকাবাসী জানায়, গ্রেফতারকৃত ফয়েজ আহমেদ বাবু এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার হিসেবে চিহ্নিত। ছাত্রীরা স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে রীতিমতো সে উত্যক্ত করে আসছিল। তার অত্যাচারে ছাত্রীদের অভিভাবকরা অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেছিল। ভয়ে মুখ খোলাতো দুরের কথা কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। তারা মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে ও ইভটিজার বাবুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।