ঢাকা ০৮:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে বাঙ্গরা থানার নাম পরিবর্তনের দাবীতে সমাবেশ

আবুল খায়েরঃ

রোজ বৃহস্পবিার, ২৯ অক্টোবর ২০১৫ ইং(মুরাদনগর বার্ ডটকম)ঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় সদ্য ঘোষিত ‘বাঙ্গরা বাজার’ থানার নাম পরিবর্তন করে ‘বাঙ্গরা রহমানাবাদ থানা’ নাম করণের দাবিতে সমাবেশ ও স্মারকলিপি দিয়েছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার বিকালে নব গঠিত ওই থানা এলাকার ১০ ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোক উপজেলা সদরে মিছিল নিয়ে সমবেত হয়ে সমাবেশ করে। সমাবেশ শেষে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপিটি গ্রহন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।

জানা যায়, ২২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত জেলার মুরাদনগর দেশের অন্যতম ও চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে একটি বৃহত্তম উপজেলা। এ উপজেলাকে প্রশাসনিকভাবে বিভক্ত করে প্রায় ৫ বছর আগে বাঙ্গরা নামে নতুন থানা ঘোষণার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে আসছিল এলাকাবাসী। গত ১৪ সেপ্টেম্বর সরকারের প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুরাদনগর উপজেলার উত্তরাঞ্চলের ১০টি ইউনিয়ন নিয়ে বাঙ্গরাবাজার নামে নতুন থানার অনুমোদন দেন। তবে মুরাদনগরের উত্তরাঞ্চলবাসীর দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশা নতুন থানার কার্যক্রম চলতি বছরের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে। তবে নব গঠিত ওই থানার নামকরণ পরিবর্তনের দাবিতে একাট্রা হয়েছে এলাকার সর্বস্তরের লোকজন।

সমাবেশে এলাকাবাসী নব গঠিত ওই থানা এলাকার সোনাকান্দা দরবার শরীফের মরহুম পীর ভারত উপমহাদেশের আধ্যাতিক সাধক আল্লামা শাহ সুফী হাফেজ আব্দুর রহমান হানাফীর (রহ.) নাম অনুসারে ‘বাঙ্গরা রহমানাবাদ থানা’  নামকরণের দাবি জানান।

এ সময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ তালীমে হিযবুল্লার মহাসচিব মোতালেব হোসেন সালেহী, সোনাকান্দ দরবার শরীফের খলিফা হযরত মাওলানা আবু বকর সিদ্দিক, ডা. মোশাররফ হোসেন, বাংলাদেশ তা’লিমে হিজবুল্লার পুর্বধইর পশ্চিম ইউপির সভাপতি খোরশেদ আলম, আবুল কালাম আজাদ, ফোরকান মেম্বার, কাজী আবদুল কাইয়ুম।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে বাঙ্গরা থানার নাম পরিবর্তনের দাবীতে সমাবেশ

আপডেট সময় ০৩:০৫:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০১৫

আবুল খায়েরঃ

রোজ বৃহস্পবিার, ২৯ অক্টোবর ২০১৫ ইং(মুরাদনগর বার্ ডটকম)ঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় সদ্য ঘোষিত ‘বাঙ্গরা বাজার’ থানার নাম পরিবর্তন করে ‘বাঙ্গরা রহমানাবাদ থানা’ নাম করণের দাবিতে সমাবেশ ও স্মারকলিপি দিয়েছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার বিকালে নব গঠিত ওই থানা এলাকার ১০ ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোক উপজেলা সদরে মিছিল নিয়ে সমবেত হয়ে সমাবেশ করে। সমাবেশ শেষে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপিটি গ্রহন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।

জানা যায়, ২২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত জেলার মুরাদনগর দেশের অন্যতম ও চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে একটি বৃহত্তম উপজেলা। এ উপজেলাকে প্রশাসনিকভাবে বিভক্ত করে প্রায় ৫ বছর আগে বাঙ্গরা নামে নতুন থানা ঘোষণার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে আসছিল এলাকাবাসী। গত ১৪ সেপ্টেম্বর সরকারের প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুরাদনগর উপজেলার উত্তরাঞ্চলের ১০টি ইউনিয়ন নিয়ে বাঙ্গরাবাজার নামে নতুন থানার অনুমোদন দেন। তবে মুরাদনগরের উত্তরাঞ্চলবাসীর দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশা নতুন থানার কার্যক্রম চলতি বছরের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে। তবে নব গঠিত ওই থানার নামকরণ পরিবর্তনের দাবিতে একাট্রা হয়েছে এলাকার সর্বস্তরের লোকজন।

সমাবেশে এলাকাবাসী নব গঠিত ওই থানা এলাকার সোনাকান্দা দরবার শরীফের মরহুম পীর ভারত উপমহাদেশের আধ্যাতিক সাধক আল্লামা শাহ সুফী হাফেজ আব্দুর রহমান হানাফীর (রহ.) নাম অনুসারে ‘বাঙ্গরা রহমানাবাদ থানা’  নামকরণের দাবি জানান।

এ সময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ তালীমে হিযবুল্লার মহাসচিব মোতালেব হোসেন সালেহী, সোনাকান্দ দরবার শরীফের খলিফা হযরত মাওলানা আবু বকর সিদ্দিক, ডা. মোশাররফ হোসেন, বাংলাদেশ তা’লিমে হিজবুল্লার পুর্বধইর পশ্চিম ইউপির সভাপতি খোরশেদ আলম, আবুল কালাম আজাদ, ফোরকান মেম্বার, কাজী আবদুল কাইয়ুম।