ঢাকা ০১:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে বাল্যবিবাহের অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতে ৭দিনের কারাদন্ড

মুরাদনগর বার্তা ডেস্ক রির্পোটঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুরের সোনা মিয়া মোল্লা দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেনির ছাত্রী বি-চাপিতলা গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবদুল হাকিমের মেয়ে তাসলিমা আক্তার(১৪)কে বাল্যবিবাহ দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে বর ও কনের অভিভাবককে জেল ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শুক্রবার সন্ধ্যায় মুরাদনগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেড মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের বাল্যবিবাহের চেষ্টার অভিযোগে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে বরের বাবা বি-চাপিতলা গ্রামের মৃত ছাবিজ উদ্দিনের ছেলে বাবুল মিয়াকে ৭দিনের কারাদন্ড এবং বিয়েতে সহযোগিতার অভিযোগে কনের চাচা একই গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে মো: জানু মিয়া(৫০) কে ১হাজার টাকা জরিমানা করেন। বর মাসুদুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালতের আচ পেয়ে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে যায়।

জানা যায়, রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের বি-চাপিতলা গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে ওমান প্রবাসী মাসুদুর রহমান(২৬)’র সাথে একই গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবদুল হাকিম মিয়ার মেয়ে ৬ষ্ঠশ্রেনির ছাত্রী তাসলিমা আক্তারের বিবাহের সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়।

৬ষ্ঠশ্রেনির ছাত্রীর বাল্যবিবাহ হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে ইউএনও তাৎক্ষনিক ভাবে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও স্থানীয় ইউপি সদস্যেদের মাধ্যমে বাল্যবিবাহের সাথে জড়িতদের উপজেলা পরিষদে হাজির করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

ইউএনও রাসেলুল কাদের বলেন, বাল্যবিবাহ একটি ব্যাধি এই ব্যাধি নির্মূল করতে বর্তমান সরকার এবং উপজেলা প্রশাসন তৎপর রয়েছে। বাল্যবিবাহের কুফল সর্ম্পকে জনসাধারনকে অবগত করতে আমরা বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছি।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে বাল্যবিবাহের অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতে ৭দিনের কারাদন্ড

আপডেট সময় ০২:২৪:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০১৬
মুরাদনগর বার্তা ডেস্ক রির্পোটঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুরের সোনা মিয়া মোল্লা দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেনির ছাত্রী বি-চাপিতলা গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবদুল হাকিমের মেয়ে তাসলিমা আক্তার(১৪)কে বাল্যবিবাহ দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে বর ও কনের অভিভাবককে জেল ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শুক্রবার সন্ধ্যায় মুরাদনগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেড মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের বাল্যবিবাহের চেষ্টার অভিযোগে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে বরের বাবা বি-চাপিতলা গ্রামের মৃত ছাবিজ উদ্দিনের ছেলে বাবুল মিয়াকে ৭দিনের কারাদন্ড এবং বিয়েতে সহযোগিতার অভিযোগে কনের চাচা একই গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে মো: জানু মিয়া(৫০) কে ১হাজার টাকা জরিমানা করেন। বর মাসুদুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালতের আচ পেয়ে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে যায়।

জানা যায়, রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের বি-চাপিতলা গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে ওমান প্রবাসী মাসুদুর রহমান(২৬)’র সাথে একই গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবদুল হাকিম মিয়ার মেয়ে ৬ষ্ঠশ্রেনির ছাত্রী তাসলিমা আক্তারের বিবাহের সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়।

৬ষ্ঠশ্রেনির ছাত্রীর বাল্যবিবাহ হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে ইউএনও তাৎক্ষনিক ভাবে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও স্থানীয় ইউপি সদস্যেদের মাধ্যমে বাল্যবিবাহের সাথে জড়িতদের উপজেলা পরিষদে হাজির করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

ইউএনও রাসেলুল কাদের বলেন, বাল্যবিবাহ একটি ব্যাধি এই ব্যাধি নির্মূল করতে বর্তমান সরকার এবং উপজেলা প্রশাসন তৎপর রয়েছে। বাল্যবিবাহের কুফল সর্ম্পকে জনসাধারনকে অবগত করতে আমরা বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছি।