ঢাকা ১১:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি

মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ
শেষ ধাপে সারাদেশের মতো কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ২২টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটগ্রহণ চলছে। অনেক কেন্দ্রে বিএনপির সমর্থিত প্রার্থীর এজেন্টদেরকে ঢুকতে দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার উপজেলার ভোট শুরুর পর বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে।

১৭ নম্বর জাহাপুর ইউপির ৮নং ওয়ার্ডে পায়ক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ৯টা পর্যন্ত বিএনপি সমর্থিত কোনো এজেন্ট পাওয়া যায়নি।

প্রার্থীর সমর্থকরা অভিযোগ করেছেন, সকালে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে চাইলে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা তাদের ধাওয়া করে। এরপর থেকে আতঙ্কে এজেন্টরা কেন্দ্রে আসতে সাহস পাননি।

কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. শাহ আলম বলেন, এজেন্টরা যারা এসেছেন, তারা সবাই পোলিং বুথে বসেছেন। ভোটররা লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন।

উপজেলার অন্যান্য কিছু কেন্দ্রেও বিএনপির সমর্থিত এজেন্টদেরকে ঢুকতে না দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কিছু কিছু কেন্দ্রে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ব্যালটে সিল দেয়ার পর মেম্বার প্রার্থীর ব্যালট ভোটারদের হাতে দেয়ার অভিযোগ এসেছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

মুরাদনগরে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি

আপডেট সময় ১১:১২:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৪ জুন ২০১৬
মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ
শেষ ধাপে সারাদেশের মতো কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ২২টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটগ্রহণ চলছে। অনেক কেন্দ্রে বিএনপির সমর্থিত প্রার্থীর এজেন্টদেরকে ঢুকতে দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার উপজেলার ভোট শুরুর পর বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে।

১৭ নম্বর জাহাপুর ইউপির ৮নং ওয়ার্ডে পায়ক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ৯টা পর্যন্ত বিএনপি সমর্থিত কোনো এজেন্ট পাওয়া যায়নি।

প্রার্থীর সমর্থকরা অভিযোগ করেছেন, সকালে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে চাইলে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা তাদের ধাওয়া করে। এরপর থেকে আতঙ্কে এজেন্টরা কেন্দ্রে আসতে সাহস পাননি।

কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. শাহ আলম বলেন, এজেন্টরা যারা এসেছেন, তারা সবাই পোলিং বুথে বসেছেন। ভোটররা লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন।

উপজেলার অন্যান্য কিছু কেন্দ্রেও বিএনপির সমর্থিত এজেন্টদেরকে ঢুকতে না দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কিছু কিছু কেন্দ্রে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ব্যালটে সিল দেয়ার পর মেম্বার প্রার্থীর ব্যালট ভোটারদের হাতে দেয়ার অভিযোগ এসেছে।