ঢাকা ১০:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানীগঞ্জ বাজারের যন্ত্রাংশ বিক্রয় ব্যবসায় সাইফুল ইসলামের উপর সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ীরা হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে।

আহত ব্যবসায়ী উপজেলার পদুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।

এ বিষয়ে শুক্রবার রাতে ব্যবসায়ীর ভাই আরিফ বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা করেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের কুলুবাড়ি গ্রামে মনু মিয়ার ছেলে কালন মিয়া(৩৫), ইউনুছ মিয়ার ছেলে মামুন(৩০) ও মৃত্য কুদ্দুছ মিয়ার ছেলে বাবুলের(৪০) নেতৃত্বে একটি চক্র অনেক দিন থেকে গ্রামে মাদক ব্যবসা করে আসছে। যার ফলে আশে পাশের এলাকার যুব সমাজ মাদকের সাথে জড়িয়ে পরতে থাকে। মাদক ব্যবসার শুরু থেকে পাশের পদুয়া গ্রামের ব্যবসায় সাইফুল ইসলাম এ মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করে আসছিল। এরই সূত্র ধরে গত শনিবার দুপুরে সাইফুল বাড়ী থেকে কোম্পানীগঞ্জ বাজারস্থ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য মালামাল ক্রয় করার জন্য রওনা হয়ে কুলুবাড়ী কালন মিযার বাড়ীর দক্ষিন পার্শ্বে রাস্থায় আশা মাত্র দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে আহত কথে থাকা টাকা লুটেনেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে শুক্রবার রাতে সাইফুলের ভাই বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ্যসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩ জনের নামে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা করেন।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

মুরাদনগরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

আপডেট সময় ০৪:০৯:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৬
মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানীগঞ্জ বাজারের যন্ত্রাংশ বিক্রয় ব্যবসায় সাইফুল ইসলামের উপর সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ীরা হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে।

আহত ব্যবসায়ী উপজেলার পদুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।

এ বিষয়ে শুক্রবার রাতে ব্যবসায়ীর ভাই আরিফ বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা করেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের কুলুবাড়ি গ্রামে মনু মিয়ার ছেলে কালন মিয়া(৩৫), ইউনুছ মিয়ার ছেলে মামুন(৩০) ও মৃত্য কুদ্দুছ মিয়ার ছেলে বাবুলের(৪০) নেতৃত্বে একটি চক্র অনেক দিন থেকে গ্রামে মাদক ব্যবসা করে আসছে। যার ফলে আশে পাশের এলাকার যুব সমাজ মাদকের সাথে জড়িয়ে পরতে থাকে। মাদক ব্যবসার শুরু থেকে পাশের পদুয়া গ্রামের ব্যবসায় সাইফুল ইসলাম এ মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করে আসছিল। এরই সূত্র ধরে গত শনিবার দুপুরে সাইফুল বাড়ী থেকে কোম্পানীগঞ্জ বাজারস্থ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য মালামাল ক্রয় করার জন্য রওনা হয়ে কুলুবাড়ী কালন মিযার বাড়ীর দক্ষিন পার্শ্বে রাস্থায় আশা মাত্র দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে আহত কথে থাকা টাকা লুটেনেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে শুক্রবার রাতে সাইফুলের ভাই বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ্যসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩ জনের নামে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা করেন।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।