ঢাকা ০৮:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

মুরাদনগর বার্তা ডেস্কঃ

রোজ রোববার, ১৩ মার্চ ২০১৬ইং(মুরাদনগর বার্তা যটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় ডালিয়া আক্তার নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে।

রোববার বিকেলে গাইনী সার্জন ডাক্তার শিরিন সুলতানার তত্তাবধানে অপারেশন চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে ডাক্তার-নার্সসহ হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যায়।

জানা যায়, মুরাদনগর উপজেলার কামাল্লা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের প্রবাসী লিটন ভুইয়ার স্ত্রী ডালিয়া আক্তার (৩০) সন্তান প্রসব করার জন্য রোববার সকালে উপজেলা সদরের ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভর্তি হন। তখন হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নিলে বিকেলে গাইনী সার্জন ডাক্তার শিরিন সুলতানার তত্তাবধানে অপারেশন শুরু হয়। অপারেশনে একটি ছেলে সন্তান প্রসবের পর রক্ত শূন্যতার কারণে প্রসূতির মৃত্যু ঘটে বলে নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করেন। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ডাক্তার-নার্সসহ হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। ঘটনার পর শত শত লোকজন হাসপাতালে ভীর জমায়। তখন স্বজনদের আহাজারিতে হাসপাতাল এলাকা শোকে ভারী হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে উত্তেজিত জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে খবর পেয়ে থানার এস আই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।

নিহত ডালিয়া আক্তারের ভাসুর স্বপন ভুইয়া জানান, রক্তশূন্যতা জেনেও ডাক্তার প্রয়োজনীয় রক্ত সংগ্রহ না রেখে অপারেশন চালিয়ে যাওয়ায় তার মৃত্যু হয়। এ কথা বলতে বলতে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। আমার ভাই লিটনের সাথে যোগাযোগ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান, আমি কুমিল্লায় আইজিপি স্যারের প্রোগ্রামে আছি। এ বিষয়ে কিছু বলতে পারব না।

বিষয়টির ব্যাপারে ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালের চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন মেম্বারের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও মোবাইল ফোন (০১৮১৭-৩১০২৩৬) রিসিভ না করায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

আপডেট সময় ০২:১২:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৩ মার্চ ২০১৬

মুরাদনগর বার্তা ডেস্কঃ

রোজ রোববার, ১৩ মার্চ ২০১৬ইং(মুরাদনগর বার্তা যটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় ডালিয়া আক্তার নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে।

রোববার বিকেলে গাইনী সার্জন ডাক্তার শিরিন সুলতানার তত্তাবধানে অপারেশন চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে ডাক্তার-নার্সসহ হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যায়।

জানা যায়, মুরাদনগর উপজেলার কামাল্লা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের প্রবাসী লিটন ভুইয়ার স্ত্রী ডালিয়া আক্তার (৩০) সন্তান প্রসব করার জন্য রোববার সকালে উপজেলা সদরের ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভর্তি হন। তখন হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নিলে বিকেলে গাইনী সার্জন ডাক্তার শিরিন সুলতানার তত্তাবধানে অপারেশন শুরু হয়। অপারেশনে একটি ছেলে সন্তান প্রসবের পর রক্ত শূন্যতার কারণে প্রসূতির মৃত্যু ঘটে বলে নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করেন। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ডাক্তার-নার্সসহ হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। ঘটনার পর শত শত লোকজন হাসপাতালে ভীর জমায়। তখন স্বজনদের আহাজারিতে হাসপাতাল এলাকা শোকে ভারী হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে উত্তেজিত জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে খবর পেয়ে থানার এস আই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।

নিহত ডালিয়া আক্তারের ভাসুর স্বপন ভুইয়া জানান, রক্তশূন্যতা জেনেও ডাক্তার প্রয়োজনীয় রক্ত সংগ্রহ না রেখে অপারেশন চালিয়ে যাওয়ায় তার মৃত্যু হয়। এ কথা বলতে বলতে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। আমার ভাই লিটনের সাথে যোগাযোগ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান, আমি কুমিল্লায় আইজিপি স্যারের প্রোগ্রামে আছি। এ বিষয়ে কিছু বলতে পারব না।

বিষয়টির ব্যাপারে ডক্টর’স ডায়াগনষ্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালের চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন মেম্বারের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও মোবাইল ফোন (০১৮১৭-৩১০২৩৬) রিসিভ না করায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।