ঢাকা ১১:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকের হামলায় আহত ২২

মো: আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

মাদক ব্যবসায়ী ও সেবক সিন্ডিকেট মিলে গ্রামারের সাহেব সর্দ্দারসহ সাধারণ মানুষের উপর হামলা চালিয়ে অনন্তত ২২জনকে পিটিয়ে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  গত মঙ্গলবার ঈদের দিন বিকালে কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার পূর্বধৈর পশ্চিম ইউপির এলখাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ওসাবেক মেম্বার আবুল খায়ের বলেন, করবানীর পশু জবাই ও নানান সামাজিক বিষয় নিয়ে ঈদের আগে আমরা গ্রামবাসি মিটিং করে নানান সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজের সিদ্ধান্ত নেই। এর মধ্যে একটি বিষয় ছিল গ্রামে কেউ অপেন মাদক বিক্রি করলে তাকে পুলিশে দেয়া হবে। এই সিদ্ধান্তের এমন খবর মাদক ব্যবসায়ী ও সেবকদের কানে গেলে তারা সমাজের বিচারকদের উপর নাখোশ থাকে। ঈদের দিন বিকালে স্থানীয় মাদব ব্যবসায়ী সাগর অপেন ইয়াবা বিক্রি করলে স্থানীয় এক যুবকের সাথে কথা কাটা কাটি হয় সাগরের। পরে স্থানীয় বড় ইয়াবা ব্যবসায়ী মুখলেছুর রহমান হিরনের নেতৃত্বে তাজুল ইসলামের ছেলে সাগর, হাসেম মিয়ার ছেলে বিল্লাল, কেরমত আলী , শাহজাহান ১০-১৫ জনের একটি দল রানদা, লোহার রোড, হকেষ্টিক নিয়ে মহরা দিয়ে প্রথমে আমার দোকানে হামলা চালিয়ে দোকান লুট করে আমার রড দিয়ে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করে। পরে আলাউদ্দিন, আবু সাইদ, জলিল মিয়াকে বাড়িতে গিয়ে পিটিয়ে আহত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। ওই মিটিং’এ সিদ্ধান্ত দেয়া চার জনের মাথা ফাটিয়েছে এবং  ৭ জনের হাত ৩ জনের পা ভেঙ্গেছে তারা। এবং অন্যান্যদের বেদরক পিয়েছে। আমরা ২২ জন আহত হয়েছি। মুরাদনগর হাসপাতালে তেরজন চিকিৎসা নিচ্ছি বাকি ৯জন কুমিল্লা জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

অভিযুক্ত হিরনের মোবাইল ফোনে একাদিকবার চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভাব হয়নি।

মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি মোয়াজ্জেম বলেন, ঈদের দিনের ওই হমলায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

মুরাদনগরে মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকের হামলায় আহত ২২

আপডেট সময় ০১:৩৬:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬
মো: আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

মাদক ব্যবসায়ী ও সেবক সিন্ডিকেট মিলে গ্রামারের সাহেব সর্দ্দারসহ সাধারণ মানুষের উপর হামলা চালিয়ে অনন্তত ২২জনকে পিটিয়ে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  গত মঙ্গলবার ঈদের দিন বিকালে কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার পূর্বধৈর পশ্চিম ইউপির এলখাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ওসাবেক মেম্বার আবুল খায়ের বলেন, করবানীর পশু জবাই ও নানান সামাজিক বিষয় নিয়ে ঈদের আগে আমরা গ্রামবাসি মিটিং করে নানান সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজের সিদ্ধান্ত নেই। এর মধ্যে একটি বিষয় ছিল গ্রামে কেউ অপেন মাদক বিক্রি করলে তাকে পুলিশে দেয়া হবে। এই সিদ্ধান্তের এমন খবর মাদক ব্যবসায়ী ও সেবকদের কানে গেলে তারা সমাজের বিচারকদের উপর নাখোশ থাকে। ঈদের দিন বিকালে স্থানীয় মাদব ব্যবসায়ী সাগর অপেন ইয়াবা বিক্রি করলে স্থানীয় এক যুবকের সাথে কথা কাটা কাটি হয় সাগরের। পরে স্থানীয় বড় ইয়াবা ব্যবসায়ী মুখলেছুর রহমান হিরনের নেতৃত্বে তাজুল ইসলামের ছেলে সাগর, হাসেম মিয়ার ছেলে বিল্লাল, কেরমত আলী , শাহজাহান ১০-১৫ জনের একটি দল রানদা, লোহার রোড, হকেষ্টিক নিয়ে মহরা দিয়ে প্রথমে আমার দোকানে হামলা চালিয়ে দোকান লুট করে আমার রড দিয়ে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করে। পরে আলাউদ্দিন, আবু সাইদ, জলিল মিয়াকে বাড়িতে গিয়ে পিটিয়ে আহত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। ওই মিটিং’এ সিদ্ধান্ত দেয়া চার জনের মাথা ফাটিয়েছে এবং  ৭ জনের হাত ৩ জনের পা ভেঙ্গেছে তারা। এবং অন্যান্যদের বেদরক পিয়েছে। আমরা ২২ জন আহত হয়েছি। মুরাদনগর হাসপাতালে তেরজন চিকিৎসা নিচ্ছি বাকি ৯জন কুমিল্লা জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

অভিযুক্ত হিরনের মোবাইল ফোনে একাদিকবার চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভাব হয়নি।

মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি মোয়াজ্জেম বলেন, ঈদের দিনের ওই হমলায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে।