ঢাকা ০৬:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে মুক্তিযোদ্ধার প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ

মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার আন্দিকোট ইউনিয়নের ডালপা গ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলমের প্রতিবন্ধী মেয়েকে(২৯) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বর্তমানে ওই তরুণী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লার আদালতে একটি মামলা করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডালপার গ্রামের হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধার প্রতিবন্ধী মেয়েকে বিভিন্ন ভাবে প্রলোভন দেখিয়ে একই গ্রামের মৃত আনু মিয়ার ছেলে প্রতারক জানু মিয়া(৪৫) শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এত করে মেয়েটির শারীরিক পরির্বতন শুরো হলে পরিবারের লোকজন তাকে ডাক্তারের নিকট নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে ৫ মাসের অন্ত:সত্ত্ব কথা বলে। পরে মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় জানু মিয়া তাকে ধর্ষন করে। এতে মেয়েটির পরিবারর অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটিকে জানু মিয়াকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়া হয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি মিমাংসার কথা বলে বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টা করে ও পরিবারটিকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে থাকে ধর্ষক। এমতা অবস্থায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লা আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত মামলাটি বাঙ্গরা বাজার থানাকে এযহার ভূক্ত করার নির্দ্দেশ প্রধান করে।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন জানান, বিজ্ঞ আদালতের নির্দ্দেশক্রমে মামলা এযহারভূক্ত করা হয়েছে। ধর্ষক পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগরে মুক্তিযোদ্ধার প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ

আপডেট সময় ০২:১৬:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুলাই ২০১৭
মো: মোশাররফ হোসেন মনিরঃ

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার আন্দিকোট ইউনিয়নের ডালপা গ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলমের প্রতিবন্ধী মেয়েকে(২৯) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বর্তমানে ওই তরুণী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লার আদালতে একটি মামলা করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডালপার গ্রামের হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধার প্রতিবন্ধী মেয়েকে বিভিন্ন ভাবে প্রলোভন দেখিয়ে একই গ্রামের মৃত আনু মিয়ার ছেলে প্রতারক জানু মিয়া(৪৫) শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এত করে মেয়েটির শারীরিক পরির্বতন শুরো হলে পরিবারের লোকজন তাকে ডাক্তারের নিকট নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে ৫ মাসের অন্ত:সত্ত্ব কথা বলে। পরে মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় জানু মিয়া তাকে ধর্ষন করে। এতে মেয়েটির পরিবারর অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটিকে জানু মিয়াকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়া হয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি মিমাংসার কথা বলে বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টা করে ও পরিবারটিকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে থাকে ধর্ষক। এমতা অবস্থায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লা আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত মামলাটি বাঙ্গরা বাজার থানাকে এযহার ভূক্ত করার নির্দ্দেশ প্রধান করে।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন জানান, বিজ্ঞ আদালতের নির্দ্দেশক্রমে মামলা এযহারভূক্ত করা হয়েছে। ধর্ষক পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।