ঢাকা ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে যুবলীগ আহবায়কের জানাযায় সর্বস্তরের মানুষের জনস্রোত

মাহবুব আলম আরিফ, বিশেষ প্রতিনিধি:

কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক খায়রুল আলম সাধনের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার বাদ জুম্মা মুরাদনগর ডি.আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জানাযা শেষে মুরাদনগর কেন্দ্রিয় করস্থানে দাফন করা হয়। এসময় প্রয়াত যুবলীগ নেতার জানাযায় দলমত নির্বিশেষে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনের সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ, কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মু. রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাষ্টার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার, সহ-সভাপতি হানিফ সরকার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন আল রশিদ, সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু, ভাইস চেয়ারম্যান, রফিকুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল আলম সরকার কিশোর, ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ তমাল, উপজেলা কৃষি অফিসার মাঈন উদ্দিন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইফুল ইসলাম কমল, মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মনজুর আলম, বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার, মুরাদনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত নাহিদ আহাম্মেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য ভিপি জাকির হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান, কামাল উদ্দিন, কাজী আবুল খায়ের, আবদুল লতিফ, আবুল হাসেম, কাইয়ুম ভূইয়া, জাকির হোসেন, রুহুল আমিন, ওমর ফারুক, বাবুল কন্টাক্টটর, শরিফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, শাহজাহান বিএসসি, সামাদ মাঝি, ইউপি সদস্য আক্তার হোসেন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক গাজিউল হক চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রুহুল আমিন, সদস্য আরিফুল ইসলাম সাহেদ, জহিরুল ইসলাম জুয়েল, আবিদ আলী, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক কামাল উদ্দিন খন্দকার, বাঙ্গরা বাজার কৃষকলীগের আহবায়ক আবু মুছা আল কবির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক রহিম পারভেজ, যুগ্ম আহবায়ক সোহরাব হোসেন বেলাল, উত্তর জেলা শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি আহসান হাবিব শামীম, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মহসিন হায়দার, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক ফয়সাল আহম্মেদ নাহিদসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অংঙ্গ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ।

এসময় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন প্রয়াত যুবলীগ নেতা খায়রুল আলম সাধনের আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে এই হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকারিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারী) সকালে মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য খায়রুল আলম সাধন (৫৩) পরদিন নিজ উপজেলায় মুজিব বর্ষ অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য ঢাকার বাসা থেকে মুরাদনগরের উদ্দেশ্যে বের হন। পরবর্তীতে দুপুর ২টার সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোস্তফাপুর এলাকায় তার লাশ ফেলে রেখে যায় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা সদর দক্ষিন থানা পুলিশ।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

মুরাদনগরে যুবলীগ আহবায়কের জানাযায় সর্বস্তরের মানুষের জনস্রোত

আপডেট সময় ০৪:০৫:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ জানুয়ারী ২০২০

মাহবুব আলম আরিফ, বিশেষ প্রতিনিধি:

কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক খায়রুল আলম সাধনের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার বাদ জুম্মা মুরাদনগর ডি.আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জানাযা শেষে মুরাদনগর কেন্দ্রিয় করস্থানে দাফন করা হয়। এসময় প্রয়াত যুবলীগ নেতার জানাযায় দলমত নির্বিশেষে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনের সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ, কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মু. রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাষ্টার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার, সহ-সভাপতি হানিফ সরকার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন আল রশিদ, সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু, ভাইস চেয়ারম্যান, রফিকুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল আলম সরকার কিশোর, ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ তমাল, উপজেলা কৃষি অফিসার মাঈন উদ্দিন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইফুল ইসলাম কমল, মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মনজুর আলম, বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার, মুরাদনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত নাহিদ আহাম্মেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য ভিপি জাকির হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান, কামাল উদ্দিন, কাজী আবুল খায়ের, আবদুল লতিফ, আবুল হাসেম, কাইয়ুম ভূইয়া, জাকির হোসেন, রুহুল আমিন, ওমর ফারুক, বাবুল কন্টাক্টটর, শরিফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, শাহজাহান বিএসসি, সামাদ মাঝি, ইউপি সদস্য আক্তার হোসেন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক গাজিউল হক চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রুহুল আমিন, সদস্য আরিফুল ইসলাম সাহেদ, জহিরুল ইসলাম জুয়েল, আবিদ আলী, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক কামাল উদ্দিন খন্দকার, বাঙ্গরা বাজার কৃষকলীগের আহবায়ক আবু মুছা আল কবির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক রহিম পারভেজ, যুগ্ম আহবায়ক সোহরাব হোসেন বেলাল, উত্তর জেলা শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি আহসান হাবিব শামীম, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মহসিন হায়দার, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক ফয়সাল আহম্মেদ নাহিদসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অংঙ্গ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ।

এসময় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন প্রয়াত যুবলীগ নেতা খায়রুল আলম সাধনের আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে এই হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকারিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারী) সকালে মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য খায়রুল আলম সাধন (৫৩) পরদিন নিজ উপজেলায় মুজিব বর্ষ অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য ঢাকার বাসা থেকে মুরাদনগরের উদ্দেশ্যে বের হন। পরবর্তীতে দুপুর ২টার সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোস্তফাপুর এলাকায় তার লাশ ফেলে রেখে যায় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা সদর দক্ষিন থানা পুলিশ।