ঢাকা ০৮:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে শিক্ষকের বেত্রাঘাতে স্কুলছাত্র আহত

মো: নাজিম উদ্দিনঃ

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালিন শিক্ষক মো: নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সপ্তম শ্রেনিতে পড়–য়া ছাত্র অমিত হাসানকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে আহত অমিত মুরাদনগর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে শুয়ে ভয়ে কাতরাচ্ছেন ওই ছাত্র। এদিকে কোমলমতি স্কুলছাত্রের উপর এমন নির্যাতনের ঘটনায় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে শিক্ষকের শাস্তি দাবি করেন।

আহত স্কুলছাত্র অমিত হাসান (১১) ঔ বিদ্যালয়ের ছাত্র ও ঘোড়াশাল গ্রামের মো: সিবলু মিয়ার ছেলে।

রবিবার সকাল ১০টায় উপজেলার ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আহতের বড় ভাই মাসুদ মিয়া জানান, অমিতের স্কুলড্রেসের প্যান্ট নোংড়া থাকায় রোববার অন্য একটি কোয়াটার প্যান্ট পড়ে স্কুলে যাওয়ার কারনে ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালিন শিক্ষক মো: নজরুল ইসলাম অমিতসহ ৬জন ছাতকে দাড় করিয়ে রাখে তারপর তাদেরকে বেত্রাঘাত করেন, অমিতের উপর বেদড়ক বেত্রাঘাত করায় তার শরীরের বিভিন্ন অংশ রক্তাক্ত হয়ে ফুলে যাওয়া অমিত অসুস্থ হয়ে যায়। পরে আমরা খবর পেয়ে অমিতকে স্কুল থেকে এনে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষক নজরুল ইসলাম ঘটনা স্বীকার করে বলেন এটা করা আমার উচিত হয়নি, আমি একটু উত্তেজিত হয়ে গিয়েছিলাম।

এ বিষয়ে ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: দেলোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আমি অমিতের অভিভাবকের সাথে কথা বলে তাদের সান্ত¡না দিয়েছি। তাকে দেখতে হাসপাতালে এসেছি। আগামীকাল আলোচনার মাধ্যমে শিক্ষক নজরুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: শফিউল আলম তালুকদার বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের দু:খ প্রকাশ করে বলেন এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনায় দায়ী শিক্ষককে সমুচিত শাস্তি পেতে হবে। আমরা তার শাস্তির ব্যবস্থা করব।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে শিক্ষকের বেত্রাঘাতে স্কুলছাত্র আহত

আপডেট সময় ০৪:০১:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০১৭
মো: নাজিম উদ্দিনঃ

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালিন শিক্ষক মো: নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সপ্তম শ্রেনিতে পড়–য়া ছাত্র অমিত হাসানকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে আহত অমিত মুরাদনগর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে শুয়ে ভয়ে কাতরাচ্ছেন ওই ছাত্র। এদিকে কোমলমতি স্কুলছাত্রের উপর এমন নির্যাতনের ঘটনায় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে শিক্ষকের শাস্তি দাবি করেন।

আহত স্কুলছাত্র অমিত হাসান (১১) ঔ বিদ্যালয়ের ছাত্র ও ঘোড়াশাল গ্রামের মো: সিবলু মিয়ার ছেলে।

রবিবার সকাল ১০টায় উপজেলার ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আহতের বড় ভাই মাসুদ মিয়া জানান, অমিতের স্কুলড্রেসের প্যান্ট নোংড়া থাকায় রোববার অন্য একটি কোয়াটার প্যান্ট পড়ে স্কুলে যাওয়ার কারনে ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালিন শিক্ষক মো: নজরুল ইসলাম অমিতসহ ৬জন ছাতকে দাড় করিয়ে রাখে তারপর তাদেরকে বেত্রাঘাত করেন, অমিতের উপর বেদড়ক বেত্রাঘাত করায় তার শরীরের বিভিন্ন অংশ রক্তাক্ত হয়ে ফুলে যাওয়া অমিত অসুস্থ হয়ে যায়। পরে আমরা খবর পেয়ে অমিতকে স্কুল থেকে এনে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষক নজরুল ইসলাম ঘটনা স্বীকার করে বলেন এটা করা আমার উচিত হয়নি, আমি একটু উত্তেজিত হয়ে গিয়েছিলাম।

এ বিষয়ে ঘোড়াশাল আ: করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: দেলোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আমি অমিতের অভিভাবকের সাথে কথা বলে তাদের সান্ত¡না দিয়েছি। তাকে দেখতে হাসপাতালে এসেছি। আগামীকাল আলোচনার মাধ্যমে শিক্ষক নজরুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: শফিউল আলম তালুকদার বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের দু:খ প্রকাশ করে বলেন এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনায় দায়ী শিক্ষককে সমুচিত শাস্তি পেতে হবে। আমরা তার শাস্তির ব্যবস্থা করব।