ঢাকা ০৯:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে শিশু অপহরণ, লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

মো: আরিফুল ইসলাম, স্টাফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে নয়ন (৫) নামের এক শিশুকে অপহরণের পর এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছে।

উপজেলার রামচন্দ্রপুর দক্ষিণ ইউপির পাঁচকিত্তা এলাকার উত্তরকান্দি গ্রামে এ অপহরণের ঘটনা ঘটে।

বুধবার বিকেলে অপহৃত শিশুটির দাদা আক্কাছ মিয়া বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, গত সোমবার রাতে উপজেলার উত্তরকান্দি গ্রামের আক্কাছ মিয়ার বাড়িতে একটি কন্যা সন্তান সঙ্গে নিয়ে অসহায় বেশে এক প্রতারক নারী রাতে থাকার জন্য আশ্রয় চায়। বাড়ির লোকজন অসহায় ভেবে তাকে আশ্রয় দেন। পরদিন মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত ওই বাড়িতে অবস্থান করে ওই নারী বাড়ির মালিক আক্কাছ মিয়রে ছেলে হেলাল মিয়ার শিশু সন্তান নয়নকে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে মঙ্গলবার রাতে আক্কাছ মিয়াকে ফোন করে তার ছেলে নয়নকে ফিরে পেতে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে বুধবার বিকেলে দাদা আক্কাছ মিয়া থানায় এসে অপহরণ মামলা দায়ের করার পর পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

মুরাদনগর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জামান বলেন, “অপহরণকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তার ও শিশু নয়নকে উদ্ধারে পুলিশ মাঠে নেমেছে। “

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগরে শিশু অপহরণ, লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

আপডেট সময় ০৪:২৭:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ অগাস্ট ২০১৭
মো: আরিফুল ইসলাম, স্টাফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে নয়ন (৫) নামের এক শিশুকে অপহরণের পর এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছে।

উপজেলার রামচন্দ্রপুর দক্ষিণ ইউপির পাঁচকিত্তা এলাকার উত্তরকান্দি গ্রামে এ অপহরণের ঘটনা ঘটে।

বুধবার বিকেলে অপহৃত শিশুটির দাদা আক্কাছ মিয়া বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, গত সোমবার রাতে উপজেলার উত্তরকান্দি গ্রামের আক্কাছ মিয়ার বাড়িতে একটি কন্যা সন্তান সঙ্গে নিয়ে অসহায় বেশে এক প্রতারক নারী রাতে থাকার জন্য আশ্রয় চায়। বাড়ির লোকজন অসহায় ভেবে তাকে আশ্রয় দেন। পরদিন মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত ওই বাড়িতে অবস্থান করে ওই নারী বাড়ির মালিক আক্কাছ মিয়রে ছেলে হেলাল মিয়ার শিশু সন্তান নয়নকে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে মঙ্গলবার রাতে আক্কাছ মিয়াকে ফোন করে তার ছেলে নয়নকে ফিরে পেতে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে বুধবার বিকেলে দাদা আক্কাছ মিয়া থানায় এসে অপহরণ মামলা দায়ের করার পর পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

মুরাদনগর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জামান বলেন, “অপহরণকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তার ও শিশু নয়নকে উদ্ধারে পুলিশ মাঠে নেমেছে। “