ঢাকা ০৮:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে স্কুল ছাত্র অপহরণ:২লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী

আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে রমজান আলী খাঁন (১১) নামে এক স্কুল ছাত্রকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে উপজেলার কুড়াখাল এলাকার আলী আজ্জম খানের ছেলে ও স্থানীয় কুড়াখাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।

অপরহণের পর দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়েছে বলে দাবি  করেছে ওই ছাত্রের পরিবার। এ ব্যাপারে সুমানগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের বাসিন্দা মোশাররফ হোসেন ওরফে আশেককে ভণ্ড পীর উল্লেখ করে তার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা দায়ের করেছে অপহৃত রমজান খানের বাবা আলী আজ্জম খান।

শিশু রমজানের বাবা-মা জানান, তাঁরা কয়েক বছর আগে ওই ভণ্ড পীরের মুরিদ হয়েছিলেন। কয়েক দিন আগে স্ত্রী অসুস্থ হলে স্বামী আলী আজ্জম পীরকে খবর দেন তাঁদের বাড়িতে। খবর পেয়ে ভণ্ড পীর মোশাররফ তার ভক্তের বাড়িতে আসেন। দুই দিন বাড়িতে থেকে সুযোগ বুঝে ওই ভণ্ড পীর গত সোমবার তাঁদের ছেলে রমজান আলীকে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে গত বুধবার সন্ধ্যায় ওই ভণ্ড পীর তাদের মোবাইল ফোনে দুই লাখ টাকা দাবি করেন। অন্যথায় শিশুটিকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়। ছেলেকে ফিরে পাওয়ার আশায় আলী আজ্জম পীরের দেওয়া বিকাশ নম্বরে দুইবার বিশ হাজার টাকা পাঠান। এতেও ওই ভণ্ড  পীর সন্তুষ্ট না হওয়ায় ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।  পরে আলী আজ্জম উপায় পেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা বাঙ্গরা থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, আলী আজ্জম একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। অচিরেই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হবে।

 

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে স্কুল ছাত্র অপহরণ:২লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী

আপডেট সময় ০৩:১৬:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ জুলাই ২০১৬
আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে রমজান আলী খাঁন (১১) নামে এক স্কুল ছাত্রকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে উপজেলার কুড়াখাল এলাকার আলী আজ্জম খানের ছেলে ও স্থানীয় কুড়াখাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।

অপরহণের পর দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়েছে বলে দাবি  করেছে ওই ছাত্রের পরিবার। এ ব্যাপারে সুমানগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের বাসিন্দা মোশাররফ হোসেন ওরফে আশেককে ভণ্ড পীর উল্লেখ করে তার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা দায়ের করেছে অপহৃত রমজান খানের বাবা আলী আজ্জম খান।

শিশু রমজানের বাবা-মা জানান, তাঁরা কয়েক বছর আগে ওই ভণ্ড পীরের মুরিদ হয়েছিলেন। কয়েক দিন আগে স্ত্রী অসুস্থ হলে স্বামী আলী আজ্জম পীরকে খবর দেন তাঁদের বাড়িতে। খবর পেয়ে ভণ্ড পীর মোশাররফ তার ভক্তের বাড়িতে আসেন। দুই দিন বাড়িতে থেকে সুযোগ বুঝে ওই ভণ্ড পীর গত সোমবার তাঁদের ছেলে রমজান আলীকে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে গত বুধবার সন্ধ্যায় ওই ভণ্ড পীর তাদের মোবাইল ফোনে দুই লাখ টাকা দাবি করেন। অন্যথায় শিশুটিকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়। ছেলেকে ফিরে পাওয়ার আশায় আলী আজ্জম পীরের দেওয়া বিকাশ নম্বরে দুইবার বিশ হাজার টাকা পাঠান। এতেও ওই ভণ্ড  পীর সন্তুষ্ট না হওয়ায় ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।  পরে আলী আজ্জম উপায় পেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা বাঙ্গরা থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, আলী আজ্জম একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। অচিরেই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হবে।