ঢাকা ০১:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে অজ্ঞাত রোগে ১০ শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে

আবুল খায়ের, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

রোজ বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টম্বর ২০১৫ ইং(মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঁশকাইট ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া কলেজে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত ১০ শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিত্সক এবং মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মীরা এ ঘটনাকে স্বাভাবিক বলে উল্লেখ করলেও প্রতিদিনই ওই অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে অজ্ঞান হওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে ওই এলাকার শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা বেশ চিন্তিত হয়ে পড়ছেন।

জানা যায়, বুধবার দুপুরে শ্রেণি পরীক্ষা চলাকালে কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র শাহজালাল হঠাত্ অজ্ঞান হয়ে পড়েন। মুহূর্তের মধ্যেই একাদশ শ্রেণি কক্ষে পরীক্ষা চলাকালে রিনা আক্তার, ফারজানা আক্তারসহ প্রায় ১০ জন শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে পড়লে কলেজে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অজ্ঞান শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে শিক্ষকরা তিনজনকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলেও বাকিদের পাশ্ববর্তী দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, পরীক্ষা চলাকালে ছাত্রছাত্রীরা হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার ঘটনা শুরু হলে আমরা দ্রুত পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা দিয়ে কলেজে ছুটি ঘোষণা করি।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে অজ্ঞাত রোগে ১০ শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে

আপডেট সময় ০৪:৫৬:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫

আবুল খায়ের, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

রোজ বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টম্বর ২০১৫ ইং(মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঁশকাইট ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া কলেজে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত ১০ শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিত্সক এবং মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মীরা এ ঘটনাকে স্বাভাবিক বলে উল্লেখ করলেও প্রতিদিনই ওই অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে অজ্ঞান হওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে ওই এলাকার শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা বেশ চিন্তিত হয়ে পড়ছেন।

জানা যায়, বুধবার দুপুরে শ্রেণি পরীক্ষা চলাকালে কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র শাহজালাল হঠাত্ অজ্ঞান হয়ে পড়েন। মুহূর্তের মধ্যেই একাদশ শ্রেণি কক্ষে পরীক্ষা চলাকালে রিনা আক্তার, ফারজানা আক্তারসহ প্রায় ১০ জন শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে পড়লে কলেজে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অজ্ঞান শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে শিক্ষকরা তিনজনকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলেও বাকিদের পাশ্ববর্তী দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, পরীক্ষা চলাকালে ছাত্রছাত্রীরা হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার ঘটনা শুরু হলে আমরা দ্রুত পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা দিয়ে কলেজে ছুটি ঘোষণা করি।