ঢাকা ০৩:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ১৬ জন ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাদের দেওয়া হচ্ছে ‘বীর নিবাস’

আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ভূমিহীন ও অসচ্ছল ১৬জন মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন বসবাসের জন্য আবাসন ‘বীর নিবাস’। সরকারি উদ্যোগে তাদের বাসস্থানের জন্য আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলেছে। প্রতিটি বাসস্থানের প্রাক্কলিত মূল্য ৯ লাখ ১৪ হাজার ২৪ টাকা।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ‘বীর নিবাস’ পাচ্ছেন এমন খবরে উপজেলার ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধারা এখন আনন্দে উচ্ছ্বসিত। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি) কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এলজিইডি-কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালে সরকার ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাসস্থান নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করে। এ প্রকল্পের আওতায় ২০১৭ সালের এপ্রিল পর্যন্ত জেলার ১৬টি উপজেলা এলাকার ১৩২ জন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের তালিকা করা হয়। ঐ তালিকার মধ্যে মুরাদনগর উপজেলায় ১৬ জন পরিবার রয়েছে। এসব পরিবারের জন্য প্রতিটি ৯ লাখ ১৪ হাজার ২৪ টাকা প্রাক্কলিত মূল্যের বাসস্থানে দুটি শয়নকক্ষ, একটি বসার কক্ষ, একটি রান্নাঘর, একটি বারান্দা, একটি টয়লেট ও একটি টিউবওয়েলসহ পাঁচশ’ বর্গফুটের আবাসন এবং গৃহের বাইরে একটি পাকা উঠান, একটি গোয়ালঘর ও একটি পোলট্রি শেড নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করা হয় এবং চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে এসব প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে।

এলজিইডি কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী স্বপন কান্তি পাল জানান, জেলার ১৬টি উপজেলায় ১৩২টি বাসস্থান নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৫টি প্যাকেজের আওতায় ১২১টি আবাসন নির্মাণের অনুমোদন পাওয়া গেছে এবং ৯৪টি বাসস্থানের নির্মাণ কাজ এরই মধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান,‘ভূমিহীন ও অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য এ প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার। প্রতিটি বাসস্থানের নামকরণ করা হয়েছে ‘বীর নিবাস’। গুণগতমান বজায় রেখে সবগুলো বাসস্থান নির্মাণের কাজ দ্রুতগতিতে চলছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে ১৬ জন ভূমিহীন মুক্তিযোদ্ধাদের দেওয়া হচ্ছে ‘বীর নিবাস’

আপডেট সময় ০৩:৫০:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০১৭
আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ভূমিহীন ও অসচ্ছল ১৬জন মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন বসবাসের জন্য আবাসন ‘বীর নিবাস’। সরকারি উদ্যোগে তাদের বাসস্থানের জন্য আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলেছে। প্রতিটি বাসস্থানের প্রাক্কলিত মূল্য ৯ লাখ ১৪ হাজার ২৪ টাকা।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ‘বীর নিবাস’ পাচ্ছেন এমন খবরে উপজেলার ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধারা এখন আনন্দে উচ্ছ্বসিত। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি) কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এলজিইডি-কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালে সরকার ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের বাসস্থান নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করে। এ প্রকল্পের আওতায় ২০১৭ সালের এপ্রিল পর্যন্ত জেলার ১৬টি উপজেলা এলাকার ১৩২ জন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের তালিকা করা হয়। ঐ তালিকার মধ্যে মুরাদনগর উপজেলায় ১৬ জন পরিবার রয়েছে। এসব পরিবারের জন্য প্রতিটি ৯ লাখ ১৪ হাজার ২৪ টাকা প্রাক্কলিত মূল্যের বাসস্থানে দুটি শয়নকক্ষ, একটি বসার কক্ষ, একটি রান্নাঘর, একটি বারান্দা, একটি টয়লেট ও একটি টিউবওয়েলসহ পাঁচশ’ বর্গফুটের আবাসন এবং গৃহের বাইরে একটি পাকা উঠান, একটি গোয়ালঘর ও একটি পোলট্রি শেড নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করা হয় এবং চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে এসব প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে।

এলজিইডি কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী স্বপন কান্তি পাল জানান, জেলার ১৬টি উপজেলায় ১৩২টি বাসস্থান নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৫টি প্যাকেজের আওতায় ১২১টি আবাসন নির্মাণের অনুমোদন পাওয়া গেছে এবং ৯৪টি বাসস্থানের নির্মাণ কাজ এরই মধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান,‘ভূমিহীন ও অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য এ প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার। প্রতিটি বাসস্থানের নামকরণ করা হয়েছে ‘বীর নিবাস’। গুণগতমান বজায় রেখে সবগুলো বাসস্থান নির্মাণের কাজ দ্রুতগতিতে চলছে।