ঢাকা ০৯:০২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ৪র্থ শ্রেনির ছাত্রীকে যৌন হয়রানী করার অভিযোগ

বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ, মুরাদনগর(কুমিল্লা):

মুরাদনগরে ৪র্থ শ্রেনির এক ছাত্রীকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুপ্রস্তাবদেয় ও হাত ধরে টানাটানি করার সময় চিৎকার করে পালিয়ে যায়। এ বিযয়ে ওই ছাত্রীর মা মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে মুরাদনগর থানা পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে এর সত্যতা পেয়ে আসামীকে গ্রেফতার করতে অভিযান চালায়। তবে লম্পট আসামী পলাতক রয়েছে।

স্থানিয় সুত্র ও পুলিশ জানায় উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের দরিকান্দি গ্রামের ইনু মিয়ার চায়ের দোকানের অদূরে গোমতী বেরী বাধের উপর স্থানিয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনির এক ছাত্রী বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে গত রোববার বেলা ১১টার দিকে একই থানর দুলারামপুর গ্রামের মৃত শাবু মিয়ার ছেলে জসিম উদ্দিন(৫০) ৫০০টাকার বিনিময়ে কুপ্রস্তাব দিয়ে হাত ধরে টানাটানি করা কালে ভিকটিম চিৎকার দিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়টি ভিকটিম তার মাকে অবগত করে। এ বিষয়ে মুরাদনগর থানায় ২০০০সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ধারায় ওই ছাত্রীর মা একটি মামলা দায়ের করেছে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাহিদ আহাম্মদ অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন অভিযুক্ত আসামী জসিম পলাতক রয়েছে তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

মুরাদনগরে ৪র্থ শ্রেনির ছাত্রীকে যৌন হয়রানী করার অভিযোগ

আপডেট সময় ০৪:৫৯:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০

বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ, মুরাদনগর(কুমিল্লা):

মুরাদনগরে ৪র্থ শ্রেনির এক ছাত্রীকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুপ্রস্তাবদেয় ও হাত ধরে টানাটানি করার সময় চিৎকার করে পালিয়ে যায়। এ বিযয়ে ওই ছাত্রীর মা মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে মুরাদনগর থানা পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে এর সত্যতা পেয়ে আসামীকে গ্রেফতার করতে অভিযান চালায়। তবে লম্পট আসামী পলাতক রয়েছে।

স্থানিয় সুত্র ও পুলিশ জানায় উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের দরিকান্দি গ্রামের ইনু মিয়ার চায়ের দোকানের অদূরে গোমতী বেরী বাধের উপর স্থানিয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনির এক ছাত্রী বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে গত রোববার বেলা ১১টার দিকে একই থানর দুলারামপুর গ্রামের মৃত শাবু মিয়ার ছেলে জসিম উদ্দিন(৫০) ৫০০টাকার বিনিময়ে কুপ্রস্তাব দিয়ে হাত ধরে টানাটানি করা কালে ভিকটিম চিৎকার দিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়টি ভিকটিম তার মাকে অবগত করে। এ বিষয়ে মুরাদনগর থানায় ২০০০সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ধারায় ওই ছাত্রীর মা একটি মামলা দায়ের করেছে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাহিদ আহাম্মদ অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন অভিযুক্ত আসামী জসিম পলাতক রয়েছে তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।