ঢাকা ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ৭৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

মো: মোশাররফ হোসন মনিরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় ৬ষ্ঠ ধাপে গত ৪জুন ২০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রাতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে ৭৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

এর মধ্যে বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান তের জন, জাসদের মনোনীত চেয়ারম্যান পদে এক জন, ইসলামী আন্দোলনের মনোনীত চেয়ারম্যান পদে চার জন জাতিয়পাটির মনোনীত চেয়ারম্যান পদে দুই জন ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদে ৫৬ জন রয়েছে।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, জামানত বাজেয়াপ্ত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হচ্ছেন, শ্রীকাইল ইউনিয়ন হতে ৮জন, মো: খাইরুল ইসলাম (জাবেদ), ইবনে সাইদ খন্দকার, কাজী মো: হাবিবুর রহমান, মুহাম্মদ বশির, মোহাম্মদ নুরুল মোমেন, আবু হানিফ, শাহ আলম সরকার, শাহজাহান। আকুবপুর ইউনিয়ন হতে ৫জন, মেহেদী আহম্মেদ রফিক, কামরুল হাছান, শাহ আলম সরকার, রজ্জব হোসেন রাজু, মো: শাহ আলম সরকার। আন্দিকোট ইউনিয়ন হতে ৩জন, নোয়াব সরকার, মুহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বাবু, মো: জাকির হোসেন। পূর্বধইর পূর্ব ইউনিয়ন হতে ৭জন, কুদ্দুছ, ফখরুদ্দিন রিয়াদ, মো: আবিদ হোসেন, মশিউর রহমান, শুকুমার শিব, সৈয়দ মুজিবুর রহমান, সৈয়দ মোবারক হোসেন।  বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন থেকে ২জন, আক্তারুজ্জামান, আব্দুল হাকিম, বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিয়ন থেকে ২ জন, নুরুল ইসলাম সরকার, রোবেল খাঁন জয়। চাপিতলা ইউনিয়ন থেকে ৮জন, জহিরুল ইসলাম সরকার, কামরুল হাসান ভূইয়া, রেজাউল করিম ভূইয়া, আব্দুল বাতেন, মো: আরঙ্গীর ভূইয়া, এম, এ হাছিব, ফেরদৌস ভূইয়া, মামুনুর রশিদ ভূইয়া। কামাল্লা ইউনিয়ন থেকে ২জন, ময়নল হোসেন, ফেরদৌস আলম, যাত্রাপুর ইউনিয়ন থেকে ২জন, মির্জা আবুল হাসেম, সফিকুল ইসলাম। রামচন্দ্রপুর দক্ষিন ইউনিয়ন থেকে ৪জন, অঅব্দুল মালেক, আমির হোসেন, মো: আসাদুল হক, মঙ্গল মিয়া। নবীপুর পূর্ব ইউনিয়ন থেকে ৪জন, এম,কে নাজমুল হাছান, কাজী নজরুল ইসলাম, খলিল, মো: হেলাল উদ্দিন। নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়ন থেকে ২জন, কামাল উদ্দিন ভূইয়া, হাবিবুর রহমান। ধামঘর ইউনিয়ন থেকে ৪ জন, মো: কাইয়ূম, শাহজাহান খাঁন, সাইদুর রহমান সুমন, সোহেল। জাহাপুর ইউনিয়ন থেকে আনোয়ার হোসেন, সৈয়দ তৌফিক আহাম্মদ। ছালিয়াকান্দি ইউনিয়ন থেকে ৪জন, মিজানুর রহমান মনির, শরীফ হোসেন সরকার, রতন কুমার রায়, সৈয়দ মোস্তাক আহম্মেদ। দারোরা ইউনিয়ন থেকে ৬জন, এইচ,এম ইকবাল মোর্শেদ, কুদ্দুছ মিয়া, জাকির হোসেন, শরিফুল আলম চৌধুরী, কামাল উদ্দিন খন্দকার, দেলোয়ার হোসেন। পাহাড়পুর ইউনিয়ন থেকে ৩জন, ছামছুল আলম (তোফায়েল) সিকদার, বসির আহম্মেদ। বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন থেকে ৩জন, এরশাদ হোসেন, জয়নাল আবেদিন, সালাহ্ উদ্দিন মুন্সী। টনকি ইউনিয়ন থেকে ৫জন, তৌফিকুল ইসলাম, আজাদ মিয়া, আবু বকর সিদ্দিক, নজরুল ইসলাম মাষ্টার, শাহ আলম।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ মাসুদুল হক বলেন, কোন চেয়ারম্যান প্রার্থী তার নিজ নির্বাচনীয় এলাকায় ভোটাভুটির মাধ্যমে মোট ভোটার সংখ্যার আট ভাগের এক ভাগ ভোট না পেলে সেই চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। সে অনুযায়ী ৭৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

মুরাদনগরে ৭৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

আপডেট সময় ০৩:০৭:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুন ২০১৬

মো: মোশাররফ হোসন মনিরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় ৬ষ্ঠ ধাপে গত ৪জুন ২০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রাতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে ৭৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

এর মধ্যে বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান তের জন, জাসদের মনোনীত চেয়ারম্যান পদে এক জন, ইসলামী আন্দোলনের মনোনীত চেয়ারম্যান পদে চার জন জাতিয়পাটির মনোনীত চেয়ারম্যান পদে দুই জন ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদে ৫৬ জন রয়েছে।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, জামানত বাজেয়াপ্ত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হচ্ছেন, শ্রীকাইল ইউনিয়ন হতে ৮জন, মো: খাইরুল ইসলাম (জাবেদ), ইবনে সাইদ খন্দকার, কাজী মো: হাবিবুর রহমান, মুহাম্মদ বশির, মোহাম্মদ নুরুল মোমেন, আবু হানিফ, শাহ আলম সরকার, শাহজাহান। আকুবপুর ইউনিয়ন হতে ৫জন, মেহেদী আহম্মেদ রফিক, কামরুল হাছান, শাহ আলম সরকার, রজ্জব হোসেন রাজু, মো: শাহ আলম সরকার। আন্দিকোট ইউনিয়ন হতে ৩জন, নোয়াব সরকার, মুহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বাবু, মো: জাকির হোসেন। পূর্বধইর পূর্ব ইউনিয়ন হতে ৭জন, কুদ্দুছ, ফখরুদ্দিন রিয়াদ, মো: আবিদ হোসেন, মশিউর রহমান, শুকুমার শিব, সৈয়দ মুজিবুর রহমান, সৈয়দ মোবারক হোসেন।  বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন থেকে ২জন, আক্তারুজ্জামান, আব্দুল হাকিম, বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিয়ন থেকে ২ জন, নুরুল ইসলাম সরকার, রোবেল খাঁন জয়। চাপিতলা ইউনিয়ন থেকে ৮জন, জহিরুল ইসলাম সরকার, কামরুল হাসান ভূইয়া, রেজাউল করিম ভূইয়া, আব্দুল বাতেন, মো: আরঙ্গীর ভূইয়া, এম, এ হাছিব, ফেরদৌস ভূইয়া, মামুনুর রশিদ ভূইয়া। কামাল্লা ইউনিয়ন থেকে ২জন, ময়নল হোসেন, ফেরদৌস আলম, যাত্রাপুর ইউনিয়ন থেকে ২জন, মির্জা আবুল হাসেম, সফিকুল ইসলাম। রামচন্দ্রপুর দক্ষিন ইউনিয়ন থেকে ৪জন, অঅব্দুল মালেক, আমির হোসেন, মো: আসাদুল হক, মঙ্গল মিয়া। নবীপুর পূর্ব ইউনিয়ন থেকে ৪জন, এম,কে নাজমুল হাছান, কাজী নজরুল ইসলাম, খলিল, মো: হেলাল উদ্দিন। নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়ন থেকে ২জন, কামাল উদ্দিন ভূইয়া, হাবিবুর রহমান। ধামঘর ইউনিয়ন থেকে ৪ জন, মো: কাইয়ূম, শাহজাহান খাঁন, সাইদুর রহমান সুমন, সোহেল। জাহাপুর ইউনিয়ন থেকে আনোয়ার হোসেন, সৈয়দ তৌফিক আহাম্মদ। ছালিয়াকান্দি ইউনিয়ন থেকে ৪জন, মিজানুর রহমান মনির, শরীফ হোসেন সরকার, রতন কুমার রায়, সৈয়দ মোস্তাক আহম্মেদ। দারোরা ইউনিয়ন থেকে ৬জন, এইচ,এম ইকবাল মোর্শেদ, কুদ্দুছ মিয়া, জাকির হোসেন, শরিফুল আলম চৌধুরী, কামাল উদ্দিন খন্দকার, দেলোয়ার হোসেন। পাহাড়পুর ইউনিয়ন থেকে ৩জন, ছামছুল আলম (তোফায়েল) সিকদার, বসির আহম্মেদ। বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন থেকে ৩জন, এরশাদ হোসেন, জয়নাল আবেদিন, সালাহ্ উদ্দিন মুন্সী। টনকি ইউনিয়ন থেকে ৫জন, তৌফিকুল ইসলাম, আজাদ মিয়া, আবু বকর সিদ্দিক, নজরুল ইসলাম মাষ্টার, শাহ আলম।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ মাসুদুল হক বলেন, কোন চেয়ারম্যান প্রার্থী তার নিজ নির্বাচনীয় এলাকায় ভোটাভুটির মাধ্যমে মোট ভোটার সংখ্যার আট ভাগের এক ভাগ ভোট না পেলে সেই চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। সে অনুযায়ী ৭৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।