ঢাকা ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ৮০ মামলার আসামী রুবিকে ইয়াবাসহ আটক

মো: আরিফুল ইসলাম, সআফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার আকুবপুর ইউনিয়নের কড়ইবাড়ি গ্রামের নিজ বাড়ী থেকে মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লাসহ বিভিন্ন জেলার শীর্ষ মাদক সম্রজ্ঞী, আলোচিত মহিলা প্রতারক, মামলাবাজ ও ৮০ মামলার আসামী রোকছানা আক্তার রুবিকে (৪৫) পাচঁ’শ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ।

আটককৃত রুবি উপজেলার কড়ইবাড়ী গ্রামের খলিলুর রহমান জুয়েলের স্ত্রী।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন জেলায় ৩২টি ধর্ষন মামলাসহ প্রায় ৬০টি মামলার বাদী ও ৩টি মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী প্রতারক রুবি কড়ইবাড়ী গ্রামের নিজ বাড়ীতে অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঙ্গরা বাজার থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক(এস আই) হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে রুবিকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার দেহ তল্লাশি চালিয়ে পাচঁ’শ পিছ ইয়াবা ও সেবন করার মালামাল উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, দেখায় সুন্দর। মানুষের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলার কৌশলে অন্য আট দশ নারীর চেয়ে অনেক এগিয়ে। বন্ধুত্ব গড়ার শুরুটা অনেক ভাল ভাবে শুরু করলেও শেষ করেন ব্ল্যাক মেইল করে মোটা সুবিধা নিয়ে নতুবা ধর্ষন মামলা দিয়ে। এভাবে ঢাকা, চট্টগ্রাম, বি-বাড়িয়া, কুমিল্লা জেলাসহ বিভিন্ন থানায় নিজে বাদী হয়ে প্রায় ৩২ টি ধর্ষন মামলা করেছেন এই রুবি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, তার এই প্রতারণার হাত থেকে রেহাই পাননি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ব্যবসায়ীসহ জনপ্রতিনিধিরাও। সে আট থেকে দশ জনের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বর্তমানে কড়ইবাড়ী গ্রামেই তার দুটি স্বামী আছে।

এ ব্যপারে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, অনেক কৌশলে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় মাদক, প্রতারনা, নারী ও শিশু নির্যাতন ও অপহরনের কয়েক ডর্জন মামলা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন রুবির বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় প্রায় ৭০ থেকে ৮০ টি মামলা থাকার কথা স্বীকার করেছে। বুধবার দুপুরে তাকে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ট্যাগস

মুরাদনগরে ৮০ মামলার আসামী রুবিকে ইয়াবাসহ আটক

আপডেট সময় ০৮:০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ অগাস্ট ২০১৬
মো: আরিফুল ইসলাম, সআফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার আকুবপুর ইউনিয়নের কড়ইবাড়ি গ্রামের নিজ বাড়ী থেকে মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লাসহ বিভিন্ন জেলার শীর্ষ মাদক সম্রজ্ঞী, আলোচিত মহিলা প্রতারক, মামলাবাজ ও ৮০ মামলার আসামী রোকছানা আক্তার রুবিকে (৪৫) পাচঁ’শ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ।

আটককৃত রুবি উপজেলার কড়ইবাড়ী গ্রামের খলিলুর রহমান জুয়েলের স্ত্রী।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন জেলায় ৩২টি ধর্ষন মামলাসহ প্রায় ৬০টি মামলার বাদী ও ৩টি মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী প্রতারক রুবি কড়ইবাড়ী গ্রামের নিজ বাড়ীতে অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঙ্গরা বাজার থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক(এস আই) হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে রুবিকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার দেহ তল্লাশি চালিয়ে পাচঁ’শ পিছ ইয়াবা ও সেবন করার মালামাল উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, দেখায় সুন্দর। মানুষের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলার কৌশলে অন্য আট দশ নারীর চেয়ে অনেক এগিয়ে। বন্ধুত্ব গড়ার শুরুটা অনেক ভাল ভাবে শুরু করলেও শেষ করেন ব্ল্যাক মেইল করে মোটা সুবিধা নিয়ে নতুবা ধর্ষন মামলা দিয়ে। এভাবে ঢাকা, চট্টগ্রাম, বি-বাড়িয়া, কুমিল্লা জেলাসহ বিভিন্ন থানায় নিজে বাদী হয়ে প্রায় ৩২ টি ধর্ষন মামলা করেছেন এই রুবি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, তার এই প্রতারণার হাত থেকে রেহাই পাননি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ব্যবসায়ীসহ জনপ্রতিনিধিরাও। সে আট থেকে দশ জনের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বর্তমানে কড়ইবাড়ী গ্রামেই তার দুটি স্বামী আছে।

এ ব্যপারে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, অনেক কৌশলে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় মাদক, প্রতারনা, নারী ও শিশু নির্যাতন ও অপহরনের কয়েক ডর্জন মামলা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন রুবির বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় প্রায় ৭০ থেকে ৮০ টি মামলা থাকার কথা স্বীকার করেছে। বুধবার দুপুরে তাকে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।