ঢাকা ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগর বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়নের ভোট গ্রহনে অনিয়মের তদন্ত শুরু

মো: আরিফুল ইসলাম, স্টাফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ৬নং বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের নয়টি কেন্দ্রের ভোট গ্রহনে ব্যাপক অনিয়ম ও একাদিক কেন্দ্রে প্রায় শতভাগ ভোট পড়ার ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ তদন্ত  করেন কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রাসেদুল হাসান।

এ সময় চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থী, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, রিটার্নিং কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদুলহক, বাঙ্গরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেয়াজেজম হোসেন, মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফজলুল কাদের চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে এ তদন্ত কার্যক্রমে অনুষ্ঠিত হয়।

৭জুন আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ মো: জাকির হোসেন নির্বাচন কমিশনে অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার সকালে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে তদন্ত শুরু হয়। নির্বাচনি প্রার্থী ও সংশ্লিষ্টিদের কাছ থেকে লিখিত জবাব নেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ৪ জুন মুরাদনগর উপজেলার ৬নং বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নয়টি কেন্দ্রের তিনটিতে চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপারে (৯৮.৪৬%, ৯১.৯১%, ৯১.১২%) প্রায় শতভাগ ভোট পড়ে। প্রবাসী, নির্বাচনী কাজে অন্যান্য নিবাচনী এলাকায় সংশ্লিষ্ট থাকা, প্রবাসী ও মৃতদের ভোট প্রদানসহ বিভিন্ন অসঙ্গতি দেখা দেয় নির্বাচনী ফলাফলে।

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রাসেদুল হাসান জানান, তদন্ত চলচ্ছে, তদন্ত শেষে নির্বাচন কমিশনে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। নির্বাচন কমিশন পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহন করবে। তিনি আরো জানান, মৃতু ও প্রবাসী ভোটারদের ভোট কাষ্ট হওয়ার বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের তালিকা দেখে যাচাই বাচাই করা হবে।

ট্যাগস

মুরাদনগর বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়নের ভোট গ্রহনে অনিয়মের তদন্ত শুরু

আপডেট সময় ১১:০০:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ জুন ২০১৬
মো: আরিফুল ইসলাম, স্টাফ রির্পোটার, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ৬নং বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের নয়টি কেন্দ্রের ভোট গ্রহনে ব্যাপক অনিয়ম ও একাদিক কেন্দ্রে প্রায় শতভাগ ভোট পড়ার ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ তদন্ত  করেন কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রাসেদুল হাসান।

এ সময় চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থী, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, রিটার্নিং কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদুলহক, বাঙ্গরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেয়াজেজম হোসেন, মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফজলুল কাদের চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে এ তদন্ত কার্যক্রমে অনুষ্ঠিত হয়।

৭জুন আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ মো: জাকির হোসেন নির্বাচন কমিশনে অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার সকালে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে তদন্ত শুরু হয়। নির্বাচনি প্রার্থী ও সংশ্লিষ্টিদের কাছ থেকে লিখিত জবাব নেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ৪ জুন মুরাদনগর উপজেলার ৬নং বাঙ্গরা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নয়টি কেন্দ্রের তিনটিতে চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপারে (৯৮.৪৬%, ৯১.৯১%, ৯১.১২%) প্রায় শতভাগ ভোট পড়ে। প্রবাসী, নির্বাচনী কাজে অন্যান্য নিবাচনী এলাকায় সংশ্লিষ্ট থাকা, প্রবাসী ও মৃতদের ভোট প্রদানসহ বিভিন্ন অসঙ্গতি দেখা দেয় নির্বাচনী ফলাফলে।

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রাসেদুল হাসান জানান, তদন্ত চলচ্ছে, তদন্ত শেষে নির্বাচন কমিশনে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। নির্বাচন কমিশন পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহন করবে। তিনি আরো জানান, মৃতু ও প্রবাসী ভোটারদের ভোট কাষ্ট হওয়ার বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের তালিকা দেখে যাচাই বাচাই করা হবে।