ঢাকা ১০:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগর মাদ্রাসা ছাত্র রহমতুল্লাহ ৫ দিন ধরে নিখোঁজ

মাহবুব আলম আরিফ:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা সদরের হিরারকান্দা গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে ও নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জ বাঘপাড়া নূরুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসার ছাত্র রহমতুল্লাহ (১৬) ঢাকা সাইনবোর্ড এলাকা থেকে ৫ দিন ধরে নিখোঁজ। এ ঘটনায় ওই ছাত্রের মা হোছনা আক্তার ফতুল্লা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

রহমতুল্লার মা হোছনা আক্তার জানান, তার ছেলে বাঘপাড়া নূরুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসায় হেফজ বিভাগের আবাসিক ছাত্র হিসেবে পড়ালেখা করত। নিখোঁজ হওয়ার ১০ দিন আগে গত ৬ জানুয়ারী মাদ্রাসা থেকে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসে। এরপর ১৭ জানুয়ারী সকালে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় যাওয়ার পর রাত ৯ টার দিকে তার বন্ধু রাজু ও সাকিলের সাথে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে সাইনবোর্ড এলাকায় রহমতুল্লার চাচা ছাইফুলের কাছে যায়। পরে রাত ১০ টাকার দিকে রাজু ও সাকিল মাদ্রাসায় ফিরে এলেও রহমতুল্লাহ আসেনি। পরদিন রহমতুল্লার খোঁজখবর নিতে তার মা মাদ্রাসার এক শিক্ষকের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেন। তখন ওই শিক্ষক জানান, রহমতুল্লাহ মাদ্রাসায় আসেনি। এর পর থেকেই রহমতুল্লার পরিবার সব আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে খোঁজ নিয়েও তার সন্ধান পায়নি। পরে ২০ জানুয়ারি ফতুল্লা থানায় ওই ছাত্রের মা জিডি করেন।

নিখোঁজের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজু ও সাকিল বলেন, রহমতুল্লাহ তার কোন এক বন্ধুর সাথে কথা বলবে তাই আমাদেরকে মাদ্রাসায় চলে যেতে বলে সে সাইনবোর্ড থেকে যায়।
এ বিষয়ে ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন বলেন, দেশের সব থানায় বার্তা পাঠানো হয়েছে। ওই ছাত্রকে উদ্ধারের জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি, একই সঙ্গে তার পরিবারের লোকজনও বিভিন্ন এলাকায় খোঁজখবর নিচ্ছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগর মাদ্রাসা ছাত্র রহমতুল্লাহ ৫ দিন ধরে নিখোঁজ

আপডেট সময় ০৩:৪৬:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০

মাহবুব আলম আরিফ:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা সদরের হিরারকান্দা গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে ও নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জ বাঘপাড়া নূরুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসার ছাত্র রহমতুল্লাহ (১৬) ঢাকা সাইনবোর্ড এলাকা থেকে ৫ দিন ধরে নিখোঁজ। এ ঘটনায় ওই ছাত্রের মা হোছনা আক্তার ফতুল্লা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

রহমতুল্লার মা হোছনা আক্তার জানান, তার ছেলে বাঘপাড়া নূরুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসায় হেফজ বিভাগের আবাসিক ছাত্র হিসেবে পড়ালেখা করত। নিখোঁজ হওয়ার ১০ দিন আগে গত ৬ জানুয়ারী মাদ্রাসা থেকে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসে। এরপর ১৭ জানুয়ারী সকালে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় যাওয়ার পর রাত ৯ টার দিকে তার বন্ধু রাজু ও সাকিলের সাথে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে সাইনবোর্ড এলাকায় রহমতুল্লার চাচা ছাইফুলের কাছে যায়। পরে রাত ১০ টাকার দিকে রাজু ও সাকিল মাদ্রাসায় ফিরে এলেও রহমতুল্লাহ আসেনি। পরদিন রহমতুল্লার খোঁজখবর নিতে তার মা মাদ্রাসার এক শিক্ষকের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেন। তখন ওই শিক্ষক জানান, রহমতুল্লাহ মাদ্রাসায় আসেনি। এর পর থেকেই রহমতুল্লার পরিবার সব আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে খোঁজ নিয়েও তার সন্ধান পায়নি। পরে ২০ জানুয়ারি ফতুল্লা থানায় ওই ছাত্রের মা জিডি করেন।

নিখোঁজের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজু ও সাকিল বলেন, রহমতুল্লাহ তার কোন এক বন্ধুর সাথে কথা বলবে তাই আমাদেরকে মাদ্রাসায় চলে যেতে বলে সে সাইনবোর্ড থেকে যায়।
এ বিষয়ে ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন বলেন, দেশের সব থানায় বার্তা পাঠানো হয়েছে। ওই ছাত্রকে উদ্ধারের জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি, একই সঙ্গে তার পরিবারের লোকজনও বিভিন্ন এলাকায় খোঁজখবর নিচ্ছেন।