ঢাকা ১১:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুুরাদনগরে জেএসসি পরিক্ষায় ফেল করায় স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা

আবুল কালাম আজাদ ভূইয়াঃ

আষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট  জেএসসি) পরীক্ষায় ফেল করায় কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলায় অন্তরা দেবনাথ (১৩) নামের এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার যাত্রপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের সংকর দেব নাথের মেয়ে ও যাত্রাপুর একে উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল অন্তরা দেবনাথ।

স্কুল ও পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ছাত্রী স্কুলে যায় তার পরীক্ষার ফলাফল জানার জন্য। পরিক্ষায় সে ফেল করেছে এমন খবওে বাড়ি চলে আসে অন্তরা। এমতাবস্থায় তার বাবা সংকর দেব নাথ ও মা সম্পারানী দেব নাথ গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের একতি কির্তনে অবস্থান করছিলেন। এতে খালি ঘর পেয়ে ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দেয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দ্রুত দেবিদ্ধার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার মেয়েটিকে মৃত্যু ঘোষনা করে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রতন কুমার সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

মুুরাদনগরে জেএসসি পরিক্ষায় ফেল করায় স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা

আপডেট সময় ০১:০৪:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৬
আবুল কালাম আজাদ ভূইয়াঃ

আষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট  জেএসসি) পরীক্ষায় ফেল করায় কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলায় অন্তরা দেবনাথ (১৩) নামের এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার যাত্রপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের সংকর দেব নাথের মেয়ে ও যাত্রাপুর একে উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল অন্তরা দেবনাথ।

স্কুল ও পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ছাত্রী স্কুলে যায় তার পরীক্ষার ফলাফল জানার জন্য। পরিক্ষায় সে ফেল করেছে এমন খবওে বাড়ি চলে আসে অন্তরা। এমতাবস্থায় তার বাবা সংকর দেব নাথ ও মা সম্পারানী দেব নাথ গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের একতি কির্তনে অবস্থান করছিলেন। এতে খালি ঘর পেয়ে ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দেয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দ্রুত দেবিদ্ধার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার মেয়েটিকে মৃত্যু ঘোষনা করে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রতন কুমার সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।