ঢাকা ১২:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ম্যাককালামের দ্বিশতকে চাপে পাকিস্তান

ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ডবল সেঞ্চুরিতে শারজাহ টেস্টে চাপে পড়েছে পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের করা ৩৫১ রানের জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটে ৬৩৭ রান তুলে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। এতে কিউইদের লিড দাঁড়িয়েছে ২৮৬ রান।
pak
কিউইদের হয়ে ডবল সেঞ্চুরি করেছেন অধিনায়ক ম্যাককালাম। আর ৮ রানের জন্যে দ্বিশতকের দেখা পাননি কেন উইলিয়ামসন। ১৯২ রান করেছে তিনি। অর্ধশত করেছেন রস টেলর, কোরি অ্যান্ডারসন ও টিম সাউদি।

ক্রিকেট বিশ্বের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একশ’র বেশি স্ট্রাইক রেটে ডাবল সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব গড়লেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। ১০৭.৪৪ স্ট্রাইক রেটে ১৮৮ বলে ২০২ রান করে ইয়াসির শাহের শিকারে পরিণত হন ম্যাককুলাম। নিউজিল্যান্ড অধিনায়কের ইনিংসটিতে ২১টি চারের সাথে ১১টি ওভার বাউন্ডারির মার ছিল। যা নিউজিল্যান্ডকে তাদের প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহের পথে নিয়ে চলেছে।

ম্যাককুলামের আগে নিউজিল্যান্ডের সাবেক ওপেনিং ব্যাটসম্যান নাথান অ্যাস্টলও এই কীর্তি দেখিয়েছিলেন। ২০০২ সালে ক্রাইস্টচার্চে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওই নজির গড়েছিলেন তিনি। ১৩২.১৪ স্ট্রাইকরেটে ১৬৮ বলে ২২২ রান করেছিলেন তিনি। যা ডাবল সেঞ্চুরি করার পথে সবচেয়ে বেশি স্ট্রাইকরেট। এই রেকর্ডের বাকি থাকা ক্রিকেটারের নাম বিরেন্দ্র শেবাগ। ভারতীয় ব্যাটসম্যান তিন তিনবার একশ’র বেশি স্ট্রাইক রেটে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

ম্যাককালামের দ্বিশতকে চাপে পাকিস্তান

আপডেট সময় ১০:৩০:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৪

ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ডবল সেঞ্চুরিতে শারজাহ টেস্টে চাপে পড়েছে পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের করা ৩৫১ রানের জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটে ৬৩৭ রান তুলে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। এতে কিউইদের লিড দাঁড়িয়েছে ২৮৬ রান।
pak
কিউইদের হয়ে ডবল সেঞ্চুরি করেছেন অধিনায়ক ম্যাককালাম। আর ৮ রানের জন্যে দ্বিশতকের দেখা পাননি কেন উইলিয়ামসন। ১৯২ রান করেছে তিনি। অর্ধশত করেছেন রস টেলর, কোরি অ্যান্ডারসন ও টিম সাউদি।

ক্রিকেট বিশ্বের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একশ’র বেশি স্ট্রাইক রেটে ডাবল সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব গড়লেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। ১০৭.৪৪ স্ট্রাইক রেটে ১৮৮ বলে ২০২ রান করে ইয়াসির শাহের শিকারে পরিণত হন ম্যাককুলাম। নিউজিল্যান্ড অধিনায়কের ইনিংসটিতে ২১টি চারের সাথে ১১টি ওভার বাউন্ডারির মার ছিল। যা নিউজিল্যান্ডকে তাদের প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহের পথে নিয়ে চলেছে।

ম্যাককুলামের আগে নিউজিল্যান্ডের সাবেক ওপেনিং ব্যাটসম্যান নাথান অ্যাস্টলও এই কীর্তি দেখিয়েছিলেন। ২০০২ সালে ক্রাইস্টচার্চে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওই নজির গড়েছিলেন তিনি। ১৩২.১৪ স্ট্রাইকরেটে ১৬৮ বলে ২২২ রান করেছিলেন তিনি। যা ডাবল সেঞ্চুরি করার পথে সবচেয়ে বেশি স্ট্রাইকরেট। এই রেকর্ডের বাকি থাকা ক্রিকেটারের নাম বিরেন্দ্র শেবাগ। ভারতীয় ব্যাটসম্যান তিন তিনবার একশ’র বেশি স্ট্রাইক রেটে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন।