ঢাকা ০৯:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রমজানে স্কুল খোলা রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত কাল

জাতীয় ডেস্কঃ

আসন্ন রমজানে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় খোলা রাখার বিষয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত দেবেন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ। হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন আজ সোমবার আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন চেম্বার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম। রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা এ এম আমিন উদ্দিন বলেছেন, আগামীকাল শুনানির পর এ বিষয়ে বলা যাবে।

গতকাল রোববার এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট পবিত্র রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং সরকারি-বেসরকারি নিম্নমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম ১৫ দিন চালু রাখার সিদ্ধান্ত দুই মাসের জন্য স্থগিত করেন। এই আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আজ আবেদনটি করে। রমজানে স্কুল খোলা রাখায় যানজটসহ কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করে রিট করেন শফিউর রহমান চৌধুরী নামের এক ব্যক্তি। হাইকোর্টে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন—আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ ও মাহমুদা খানম।

উল্লেখ্য, ৮ ফেব্রুয়ারি এক আদেশে ১১ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত মোট ১৫ দিন সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক ও নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চালু রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিল শিক্ষা বিভাগ। আর রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

রমজানে স্কুল খোলা রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত কাল

আপডেট সময় ১২:৪৩:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪

জাতীয় ডেস্কঃ

আসন্ন রমজানে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় খোলা রাখার বিষয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত দেবেন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ। হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন আজ সোমবার আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন চেম্বার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম। রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা এ এম আমিন উদ্দিন বলেছেন, আগামীকাল শুনানির পর এ বিষয়ে বলা যাবে।

গতকাল রোববার এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট পবিত্র রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং সরকারি-বেসরকারি নিম্নমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম ১৫ দিন চালু রাখার সিদ্ধান্ত দুই মাসের জন্য স্থগিত করেন। এই আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আজ আবেদনটি করে। রমজানে স্কুল খোলা রাখায় যানজটসহ কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করে রিট করেন শফিউর রহমান চৌধুরী নামের এক ব্যক্তি। হাইকোর্টে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন—আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ ও মাহমুদা খানম।

উল্লেখ্য, ৮ ফেব্রুয়ারি এক আদেশে ১১ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত মোট ১৫ দিন সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক ও নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চালু রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিল শিক্ষা বিভাগ। আর রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।