ঢাকা ১১:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রোহিঙ্গা ‘জঙ্গিদের’ দিকে বিশ্বের নজর না থাকায় হতাশ সু চি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

রোহিঙ্গা ‘জঙ্গিদের’ দিকে চোখ না রেখে শুধুমাত্র মিয়ানমার আর্মির কর্মকাণ্ডকে ‘হত্যাযজ্ঞ’ বলে প্রচার চালানোয় বিশ্বমিডিয়ার প্রতি নিজের হতাশা ব্যক্ত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী অং সান সু চি। তার অভিযোগ, রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের জঙ্গি তৎপরতা নিয়ে বিশ্বের কোন মাথাব্যাথা নেই, অথচ তারা মিয়ানমারের আর্মির প্রতিরক্ষা তৎপরতাকে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর হত্যাযজ্ঞ বলে প্রচার চালাচ্ছে। খবর সিএনএন নিউজের।

বুধবার জাপানের নিক্কেই সংবাদপত্রে একটি ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকার দেন শান্তিতে নোবেলজয়ী এই নেত্রী। সেখানেই ২০১৭ সালে বাংলাদেশে তাড়ানো রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে তাকে প্রশ্ন করা হলে নিজের দেশের আর্মির সমর্থনে এমন অনুযোগ করেন সু চি।

সুচি বলেন, ‘রাখাইন রাজ্যে এমন অনেকগুলো গ্রুপ আছে, যারা শান্তি চায় না। জঙ্গিদের ক্ষেত্রে প্রধান সমস্যাটা হলো, তারা যা চায়, তা তাদের দেয়া সম্ভব না।’ এসময় ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর মিয়ানমার আর্মির সামরিক অভিযানের কথা উল্লেখ করে তিনি অনুযোগ করেন, ‘আমাদের জন্য ব্যাপারটা খুবই দুঃখজনক যে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় রাখাইন রাজ্যে জঙ্গিদের অপতৎপরতার বিষয়টির দিকে নজরই দিচ্ছে না।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে মিয়ানমার আর্মির অভিযানে সেদেশের প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা এসে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী কক্সবাজার, রামু ও উখিয়ায় আশ্রয় নেয়। প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর বদৌলতে বর্তমানে বাংলাদেশ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবিরে পরিণত হয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

রোহিঙ্গা ‘জঙ্গিদের’ দিকে বিশ্বের নজর না থাকায় হতাশ সু চি

আপডেট সময় ০৫:৫৯:৫৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

রোহিঙ্গা ‘জঙ্গিদের’ দিকে চোখ না রেখে শুধুমাত্র মিয়ানমার আর্মির কর্মকাণ্ডকে ‘হত্যাযজ্ঞ’ বলে প্রচার চালানোয় বিশ্বমিডিয়ার প্রতি নিজের হতাশা ব্যক্ত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী অং সান সু চি। তার অভিযোগ, রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের জঙ্গি তৎপরতা নিয়ে বিশ্বের কোন মাথাব্যাথা নেই, অথচ তারা মিয়ানমারের আর্মির প্রতিরক্ষা তৎপরতাকে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর হত্যাযজ্ঞ বলে প্রচার চালাচ্ছে। খবর সিএনএন নিউজের।

বুধবার জাপানের নিক্কেই সংবাদপত্রে একটি ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকার দেন শান্তিতে নোবেলজয়ী এই নেত্রী। সেখানেই ২০১৭ সালে বাংলাদেশে তাড়ানো রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে তাকে প্রশ্ন করা হলে নিজের দেশের আর্মির সমর্থনে এমন অনুযোগ করেন সু চি।

সুচি বলেন, ‘রাখাইন রাজ্যে এমন অনেকগুলো গ্রুপ আছে, যারা শান্তি চায় না। জঙ্গিদের ক্ষেত্রে প্রধান সমস্যাটা হলো, তারা যা চায়, তা তাদের দেয়া সম্ভব না।’ এসময় ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর মিয়ানমার আর্মির সামরিক অভিযানের কথা উল্লেখ করে তিনি অনুযোগ করেন, ‘আমাদের জন্য ব্যাপারটা খুবই দুঃখজনক যে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় রাখাইন রাজ্যে জঙ্গিদের অপতৎপরতার বিষয়টির দিকে নজরই দিচ্ছে না।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে মিয়ানমার আর্মির অভিযানে সেদেশের প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা এসে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী কক্সবাজার, রামু ও উখিয়ায় আশ্রয় নেয়। প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর বদৌলতে বর্তমানে বাংলাদেশ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবিরে পরিণত হয়েছে।