ঢাকা ১১:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাকিব-অপুর ভাগ্যে আরও ১৮ দিন

বিনোদন ডেস্কঃ

শাকিব ও অপুকে নিয়ে তৃতীয় ও শেষ শুনানি হচ্ছে ১২ মার্চ। ঢাকা সিটি করপোরেশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।  ২২ নভেম্বর শাকিব খান তার আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে অপুর কাছে তালাকের নোটিশ পাঠান। সে অনুযায়ী এই তালাক কার্যকর হবার কথা আজ ২২ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু আদতে তা ঘটতে যাচ্ছে আগামী ১২ মার্চ। অর্থাৎ এখনো ১৮ দিন বাকি। কিন্তু কেন এই ১৮ দিন, কীভাবে এলো?

এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) অঞ্চল-৩-এর নির্বাহী কর্মকর্তা হেমায়েত হোসেন জানান, শাকিব খান ২২ নভেম্বর পাঠালেও অপু বিশ্বাস সেই নোটিশ হাতে পান ১২ ডিসেম্বর। ফলে চিঠি হাতে পাওয়ার দিন থেকেই তিন মাসের বিষয়টি গণনা শুরু হয়। সেই হিসেবে চিঠি হাতে পৌঁছানোর ঠিক এক মাসের মাথায় চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি ডিএনসিসি প্রথম সালিশ বৈঠকের আয়োজন করে।

প্রথম বৈঠকে অপু উপস্থিত থাকলেও শাকিব ছিলেন অনুপস্থিত। এরপর ১২ ফেব্রুয়ারি আয়োজিত দ্বিতীয় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না দুজনের একজনও। সেই হিসেবে এ বিষয়ে তৃতীয় এবং শেষ বৈঠক হতে যাচ্ছে ১২ মার্চ।

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তাদের ঘরে আসে পুত্রসন্তান আব্রাম খান জয়। বিয়ে এবং সন্তান জন্মের বিষয়টি গোপন থাকলেও গত বছর ১০ এপ্রিল বিষয়টি প্রকাশ করে দেন অপু বিশ্বাস।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

শাকিব-অপুর ভাগ্যে আরও ১৮ দিন

আপডেট সময় ১২:২৭:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
বিনোদন ডেস্কঃ

শাকিব ও অপুকে নিয়ে তৃতীয় ও শেষ শুনানি হচ্ছে ১২ মার্চ। ঢাকা সিটি করপোরেশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।  ২২ নভেম্বর শাকিব খান তার আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে অপুর কাছে তালাকের নোটিশ পাঠান। সে অনুযায়ী এই তালাক কার্যকর হবার কথা আজ ২২ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু আদতে তা ঘটতে যাচ্ছে আগামী ১২ মার্চ। অর্থাৎ এখনো ১৮ দিন বাকি। কিন্তু কেন এই ১৮ দিন, কীভাবে এলো?

এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) অঞ্চল-৩-এর নির্বাহী কর্মকর্তা হেমায়েত হোসেন জানান, শাকিব খান ২২ নভেম্বর পাঠালেও অপু বিশ্বাস সেই নোটিশ হাতে পান ১২ ডিসেম্বর। ফলে চিঠি হাতে পাওয়ার দিন থেকেই তিন মাসের বিষয়টি গণনা শুরু হয়। সেই হিসেবে চিঠি হাতে পৌঁছানোর ঠিক এক মাসের মাথায় চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি ডিএনসিসি প্রথম সালিশ বৈঠকের আয়োজন করে।

প্রথম বৈঠকে অপু উপস্থিত থাকলেও শাকিব ছিলেন অনুপস্থিত। এরপর ১২ ফেব্রুয়ারি আয়োজিত দ্বিতীয় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না দুজনের একজনও। সেই হিসেবে এ বিষয়ে তৃতীয় এবং শেষ বৈঠক হতে যাচ্ছে ১২ মার্চ।

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তাদের ঘরে আসে পুত্রসন্তান আব্রাম খান জয়। বিয়ে এবং সন্তান জন্মের বিষয়টি গোপন থাকলেও গত বছর ১০ এপ্রিল বিষয়টি প্রকাশ করে দেন অপু বিশ্বাস।