ঢাকা ১১:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সবার প্রিয় অভিনেত্রী হতে চাই: আইরিন

বিনোদন ডেস্ক:

স্বপ্ন দেখতে কে না ভালোবাসে। কেউ বাস্তব নিয়ে স্বপ্ন দেখে, কেউ বা দেখে অবাস্তব বিষয় নিয়ে। তবে খুব কম লোক আছে যারা শুধু স্বপ্ন দেখে বসে থাকতে রাজি নয়। স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে নিরলস পরিশ্রম করে যান। সফল না হওয়া পর্যন্ত যেন থামতেই চান না।

তবে সপ্ন ছোঁয়ার পথ চলা অনেক সময় মসৃন হয় আবার কখনো কন্টকাকীর্ণ। সফলতার পথ বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কাটাযুক্ত হয়, সেখানে সফল হতে দিতে হয় অনেক শ্রম ও ত্যাগ। থাকতে হয় দৃঢ় সংকল্প, পথচলার তীব্র সাহস। ঠিক তেমনি মিডিয়া পাড়াতে নিজের জায়গা করে নেয়ার দৃঢ় সংকল্প নেয়া একজন হচ্ছেন নবাগতা অভিনেত্রী ও মডেল আইরিন ইরানি।

ঢাকার নিকটস্থ গাজীপুরের একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে ১৯৯৫ সালের ২৫ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন আইরিন ইরানি। ছোটবেলা থেকেই বিনোদন জগতের প্রতি তার ভালো লাগা কাজ করতো। তাই প্রবাহমান জীবনের দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি অভিনয় জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন এই তরুণী। তিনি বেশ কিছু পোশাক প্রতিষ্ঠানের স্থিরচিত্রের মডেল হয়েছেন। অভিনেত্রী হয়ে কাজ করেছেন বেশ কিছু পণ্যের বিজ্ঞাপনে ও টেলিভিশান নাটকে। নতুন একটি ধারাবাহিক নাটকেও যুক্ত হয়েছেন সম্প্রতি।

আইরিন ইরানি জানান,  ‘অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসা সেই স্কুল জীবন থেকে। তবে ভালো কাজের সুযোগ তো চাইলেই হয় না। নতুন হিসেবে কাজ পেতে বেশ অসুবিধা হচ্ছে। তবে চেষ্টা করছি, সবার সহযোগিতা নিয়ে যেন স্বপ্ন পুরণের কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারি। তবে আমি সবসময় ভালো গল্প ও চরিত্র বাছাই করে কাজ করার চেষ্টা করি এবং আগামীতেও করব। আমি সবার প্রিয় অভিনেত্রী হতে চাই।’

সিনেমার জন্য মাঝে মাঝে প্রস্তাব পেলেও চরিত্রের গুরুত্ব না থাকায় কাজ করা হয়ে ওঠেনি বরে জানান আইরিন। তবে সিনেমার প্রতি ভালোবাসা সবসময় কাজ করেছে তার মাঝে। সম্প্রতি তিনি ‘থার্ড লাভ’ নামে একটি সিনেমার কাজের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

সিনেমায় কাজ করা প্রসঙ্গে আইরিন বলেন, ‘সিনেমায় ছোট ছোট বা অগোছালো কিছু চরিত্রের জন্য ডাক পড়ে মাঝে মাঝেই। তবে চরিত্রের গুরুত্ব না থাকলে সিনেমা করব না আগেই ভেবে রেখেছি।’

আরও বলেন, ‘বোরহান খান ভাইয়ের ‘থার্ড লাভ’ সিনেমার গল্পটি মনে দোলা দেয়ার মত। অবশ্য এরকম কথা সবাই নিজের কাজের বেলায় বলে। কিন্তু আসলেই গল্পটি মন ছুঁয়ে যাওয়ার মত। অ্যাটলিস্ট একটা দীর্ঘশ্বাস বের হবে দর্শকের হৃদয় চিরে। সিনেমাটি গল্পনির্ভর ও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কারকে লক্ষ্য করে বানানো হচ্ছে।’

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

সবার প্রিয় অভিনেত্রী হতে চাই: আইরিন

আপডেট সময় ০৫:৪৫:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জানুয়ারী ২০২০

বিনোদন ডেস্ক:

স্বপ্ন দেখতে কে না ভালোবাসে। কেউ বাস্তব নিয়ে স্বপ্ন দেখে, কেউ বা দেখে অবাস্তব বিষয় নিয়ে। তবে খুব কম লোক আছে যারা শুধু স্বপ্ন দেখে বসে থাকতে রাজি নয়। স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে নিরলস পরিশ্রম করে যান। সফল না হওয়া পর্যন্ত যেন থামতেই চান না।

তবে সপ্ন ছোঁয়ার পথ চলা অনেক সময় মসৃন হয় আবার কখনো কন্টকাকীর্ণ। সফলতার পথ বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কাটাযুক্ত হয়, সেখানে সফল হতে দিতে হয় অনেক শ্রম ও ত্যাগ। থাকতে হয় দৃঢ় সংকল্প, পথচলার তীব্র সাহস। ঠিক তেমনি মিডিয়া পাড়াতে নিজের জায়গা করে নেয়ার দৃঢ় সংকল্প নেয়া একজন হচ্ছেন নবাগতা অভিনেত্রী ও মডেল আইরিন ইরানি।

ঢাকার নিকটস্থ গাজীপুরের একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে ১৯৯৫ সালের ২৫ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন আইরিন ইরানি। ছোটবেলা থেকেই বিনোদন জগতের প্রতি তার ভালো লাগা কাজ করতো। তাই প্রবাহমান জীবনের দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি অভিনয় জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন এই তরুণী। তিনি বেশ কিছু পোশাক প্রতিষ্ঠানের স্থিরচিত্রের মডেল হয়েছেন। অভিনেত্রী হয়ে কাজ করেছেন বেশ কিছু পণ্যের বিজ্ঞাপনে ও টেলিভিশান নাটকে। নতুন একটি ধারাবাহিক নাটকেও যুক্ত হয়েছেন সম্প্রতি।

আইরিন ইরানি জানান,  ‘অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসা সেই স্কুল জীবন থেকে। তবে ভালো কাজের সুযোগ তো চাইলেই হয় না। নতুন হিসেবে কাজ পেতে বেশ অসুবিধা হচ্ছে। তবে চেষ্টা করছি, সবার সহযোগিতা নিয়ে যেন স্বপ্ন পুরণের কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারি। তবে আমি সবসময় ভালো গল্প ও চরিত্র বাছাই করে কাজ করার চেষ্টা করি এবং আগামীতেও করব। আমি সবার প্রিয় অভিনেত্রী হতে চাই।’

সিনেমার জন্য মাঝে মাঝে প্রস্তাব পেলেও চরিত্রের গুরুত্ব না থাকায় কাজ করা হয়ে ওঠেনি বরে জানান আইরিন। তবে সিনেমার প্রতি ভালোবাসা সবসময় কাজ করেছে তার মাঝে। সম্প্রতি তিনি ‘থার্ড লাভ’ নামে একটি সিনেমার কাজের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

সিনেমায় কাজ করা প্রসঙ্গে আইরিন বলেন, ‘সিনেমায় ছোট ছোট বা অগোছালো কিছু চরিত্রের জন্য ডাক পড়ে মাঝে মাঝেই। তবে চরিত্রের গুরুত্ব না থাকলে সিনেমা করব না আগেই ভেবে রেখেছি।’

আরও বলেন, ‘বোরহান খান ভাইয়ের ‘থার্ড লাভ’ সিনেমার গল্পটি মনে দোলা দেয়ার মত। অবশ্য এরকম কথা সবাই নিজের কাজের বেলায় বলে। কিন্তু আসলেই গল্পটি মন ছুঁয়ে যাওয়ার মত। অ্যাটলিস্ট একটা দীর্ঘশ্বাস বের হবে দর্শকের হৃদয় চিরে। সিনেমাটি গল্পনির্ভর ও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কারকে লক্ষ্য করে বানানো হচ্ছে।’