ঢাকা ১১:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকার যে বাজেট দিয়েছে, তা জনগণ গ্রহণ করেনি’

জাতীয় ডেস্কঃ
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ বলেছেন, ‘২০১৭-১৮ অর্থবছরে সরকার যে বাজেট দিয়েছে তা জনগণ গ্রহণ করেনি। জনগণের উপর করের বোঝা চাপানো হয়েছে। আশা করি সরকার বাজেটে সংশোধনী আনবেন এবং জনকল্যাণ মুখী করবেন।’
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টি আয়োজিত ইফতার পার্টিতে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমাদের দলকে আগামী নির্বাচনের জন্য শক্তিশালী করতে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। দলের মধ্যে কোনো দ্বিধা-বিভক্তি রাখা যাবে না। আমাদের হারানো আসনগুলো ফিরিয়ে আনতে পারলে আমরা আমাদের হারানো গৌরব ফিরে পাবো। সেই লক্ষ্যেই আমাদের সকলকে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘চট্টগ্রামে ভূমি ধসে ছয়জন সেনা সদস্যসহ যে সকল সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। সেনা সদস্যরা জনগণের কল্যাণে জীবন দিয়েছেন। আল্লাহ্‌ যেন তাদের জান্নাতবাসী করেন।’
এ সময় সেখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, জাতীয় পার্টি প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর অব. খালেদ আখতার, জেলা জাপার আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, মহানগর জাপার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির, জাতীয় ছাত্র সমাজ রংপুর মহানগরের নেতা ইঞ্জিনিয়ার মো. আল আমীন সুমনসহ মহানগরের দুই হাজারেরও বেশি নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
ইত্তেফাক
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

সরকার যে বাজেট দিয়েছে, তা জনগণ গ্রহণ করেনি’

আপডেট সময় ০৩:৩৬:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ বলেছেন, ‘২০১৭-১৮ অর্থবছরে সরকার যে বাজেট দিয়েছে তা জনগণ গ্রহণ করেনি। জনগণের উপর করের বোঝা চাপানো হয়েছে। আশা করি সরকার বাজেটে সংশোধনী আনবেন এবং জনকল্যাণ মুখী করবেন।’
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টি আয়োজিত ইফতার পার্টিতে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমাদের দলকে আগামী নির্বাচনের জন্য শক্তিশালী করতে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। দলের মধ্যে কোনো দ্বিধা-বিভক্তি রাখা যাবে না। আমাদের হারানো আসনগুলো ফিরিয়ে আনতে পারলে আমরা আমাদের হারানো গৌরব ফিরে পাবো। সেই লক্ষ্যেই আমাদের সকলকে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘চট্টগ্রামে ভূমি ধসে ছয়জন সেনা সদস্যসহ যে সকল সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। সেনা সদস্যরা জনগণের কল্যাণে জীবন দিয়েছেন। আল্লাহ্‌ যেন তাদের জান্নাতবাসী করেন।’
এ সময় সেখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, জাতীয় পার্টি প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর অব. খালেদ আখতার, জেলা জাপার আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, মহানগর জাপার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির, জাতীয় ছাত্র সমাজ রংপুর মহানগরের নেতা ইঞ্জিনিয়ার মো. আল আমীন সুমনসহ মহানগরের দুই হাজারেরও বেশি নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
ইত্তেফাক