ঢাকা ০১:১১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাঁড়াশি অভিযানের নামে গণগ্রেফতার চলছে:ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিল।

জাতীয় ডেস্ক, মুরাদনগর বার্তা টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

সরকার সাঁড়াশি অভিযানের নামে বিরোধী মতের নেতাকর্মীদের ঢালাওভাবে গণগ্রেফতার করছে বলে মন্তব্য করে ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিল।

এ অভিযানের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি।

শীর্ষ সন্ত্রাসী ও জঙ্গি দমনের নামে এ ধরনের অভিযান চালিয়ে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদেরকে অন্যায়ভাবে হয়রানী করা হচ্ছে বলে সংগঠনের দবি। এটি মানবাধিকারের চরম লংঘন বলেও মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের এই সংগঠনটি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিলের ২০১ জন আইনজীবীর পক্ষে এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সংগঠনের পক্ষে বিবৃতি পাঠান অ্যাডভোকেট এস.এম জুলফিকার আলী জুনু।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষদের গুপ্ত হত্যায় জড়িতদেরকে গ্রেফতার করতে না পেরে পুলিশ এ ধরনের অভিযান চালাচ্ছে। গুপ্ত হত্যায় সরকারের ব্যর্থতা রয়েছে বলেও মনে করেন ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিলের নেতারা।

সাঁড়াশি অভিযানের নামে পুলিশ গ্রেফতার বাণিজ্য করছে বলেও অভিযোগ করেছে সংগঠনটি।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান, এস এম জুলফিকার আলী জুনু, শফিউল্লাহ, মহিবউল্লাহ মারুফ, মোসলেম উদ্দীন, চেমন আক্তার, সুলতান মাহমুদ, তাহেরুল ইসলাম, মশিউর রহমান, সাবিনা ইয়াসমিন, হাদিউল ইসলাম মল্লিক, রাশিদা আলিম ঐশী, ফারজানা সুলতানা সাথী, কবির হোসেন, আশিকুর রহমান, আকবর হোসেন, এমদাদুল হক, আরিফুল ইসলাম, নাসিমুল হাসান, নাজমুল হাসান, শেখ আব্দুস সালাম,হোসাইন আহমেদ আশিক প্রমুখসহ ২০১ জন আইনজীবী।

সূত্র: আমার দেশ অনলাইন।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সাঁড়াশি অভিযানের নামে গণগ্রেফতার চলছে:ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিল।

আপডেট সময় ০২:৪৪:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুন ২০১৬

জাতীয় ডেস্ক, মুরাদনগর বার্তা টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

সরকার সাঁড়াশি অভিযানের নামে বিরোধী মতের নেতাকর্মীদের ঢালাওভাবে গণগ্রেফতার করছে বলে মন্তব্য করে ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিল।

এ অভিযানের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি।

শীর্ষ সন্ত্রাসী ও জঙ্গি দমনের নামে এ ধরনের অভিযান চালিয়ে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদেরকে অন্যায়ভাবে হয়রানী করা হচ্ছে বলে সংগঠনের দবি। এটি মানবাধিকারের চরম লংঘন বলেও মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের এই সংগঠনটি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিলের ২০১ জন আইনজীবীর পক্ষে এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সংগঠনের পক্ষে বিবৃতি পাঠান অ্যাডভোকেট এস.এম জুলফিকার আলী জুনু।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষদের গুপ্ত হত্যায় জড়িতদেরকে গ্রেফতার করতে না পেরে পুলিশ এ ধরনের অভিযান চালাচ্ছে। গুপ্ত হত্যায় সরকারের ব্যর্থতা রয়েছে বলেও মনে করেন ন্যাশনাল ল’ ইয়ার্স কাউন্সিলের নেতারা।

সাঁড়াশি অভিযানের নামে পুলিশ গ্রেফতার বাণিজ্য করছে বলেও অভিযোগ করেছে সংগঠনটি।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান, এস এম জুলফিকার আলী জুনু, শফিউল্লাহ, মহিবউল্লাহ মারুফ, মোসলেম উদ্দীন, চেমন আক্তার, সুলতান মাহমুদ, তাহেরুল ইসলাম, মশিউর রহমান, সাবিনা ইয়াসমিন, হাদিউল ইসলাম মল্লিক, রাশিদা আলিম ঐশী, ফারজানা সুলতানা সাথী, কবির হোসেন, আশিকুর রহমান, আকবর হোসেন, এমদাদুল হক, আরিফুল ইসলাম, নাসিমুল হাসান, নাজমুল হাসান, শেখ আব্দুস সালাম,হোসাইন আহমেদ আশিক প্রমুখসহ ২০১ জন আইনজীবী।

সূত্র: আমার দেশ অনলাইন।