ঢাকা ০৮:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিরিয়া থেকে ৫০ টন সোনা পাচার করেছে মার্কিন বাহিনী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মধ্যপ্রাচ্যের সিরিয়ায় চলমান যুদ্ধের মধ্যেই অন্তত ৫০ টন সোনা পাচার করেছে মার্কিন বাহিনী। 

তুর্কি সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি সাবাহ জানায়, সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলের দায়েস সন্ত্রাসী অঞ্চল থেকে ৫০ টনের বেশি সোনা কোবানিতে অবস্থিত নিজেদের ঘাঁটিতে স্থানান্তর করেছে মার্কিন বাহিনী। সিরিয়ার পিপলস প্রটেকশন ইউনিট (ওয়াইপিজি) বাহিনীকে স্বর্ণের সামান্য অংশের ভাগ দিয়েছে মার্কিন বাহিনী।

৫০ টনের মধ্যে অন্তত ৪০ টন সোনা দায়েস অঞ্চল থেকে চুরি করা হয়েছে। 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সানা দাবি জানায়, সিরিয়ার দক্ষিণ হাসাকাহ অঞ্চলের আল-দাশশি অঞ্চল থেকে মার্কিন বাহিনী বিশাল বিশাল বাক্সগুলো দায়েশের স্বর্ণ দ্বারা বোঝাই করে।  

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, দায়েসের সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর নেতারা নিয়মিত মার্কিন বাহিনীকে কোথায় কোথায় স্বর্ণ রয়েছে, সে তথ্য জানায়। পরে মার্কিন বাহিনী পরিকল্পনামাফিক সেখান থেকে স্বর্ণ পাচার করে।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সিরিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা একটি সংস্থাও একই দাবি করেছে। 

সিরিয়ায় প্রায় দুই হাজার মার্কিন সৈন্য রয়েছে। তারা দেশটির সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে। 

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

সিরিয়া থেকে ৫০ টন সোনা পাচার করেছে মার্কিন বাহিনী

আপডেট সময় ০২:২৭:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ জানুয়ারী ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মধ্যপ্রাচ্যের সিরিয়ায় চলমান যুদ্ধের মধ্যেই অন্তত ৫০ টন সোনা পাচার করেছে মার্কিন বাহিনী। 

তুর্কি সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি সাবাহ জানায়, সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলের দায়েস সন্ত্রাসী অঞ্চল থেকে ৫০ টনের বেশি সোনা কোবানিতে অবস্থিত নিজেদের ঘাঁটিতে স্থানান্তর করেছে মার্কিন বাহিনী। সিরিয়ার পিপলস প্রটেকশন ইউনিট (ওয়াইপিজি) বাহিনীকে স্বর্ণের সামান্য অংশের ভাগ দিয়েছে মার্কিন বাহিনী।

৫০ টনের মধ্যে অন্তত ৪০ টন সোনা দায়েস অঞ্চল থেকে চুরি করা হয়েছে। 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সানা দাবি জানায়, সিরিয়ার দক্ষিণ হাসাকাহ অঞ্চলের আল-দাশশি অঞ্চল থেকে মার্কিন বাহিনী বিশাল বিশাল বাক্সগুলো দায়েশের স্বর্ণ দ্বারা বোঝাই করে।  

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, দায়েসের সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর নেতারা নিয়মিত মার্কিন বাহিনীকে কোথায় কোথায় স্বর্ণ রয়েছে, সে তথ্য জানায়। পরে মার্কিন বাহিনী পরিকল্পনামাফিক সেখান থেকে স্বর্ণ পাচার করে।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সিরিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা একটি সংস্থাও একই দাবি করেছে। 

সিরিয়ায় প্রায় দুই হাজার মার্কিন সৈন্য রয়েছে। তারা দেশটির সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে।