ঢাকা ১২:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেনাবাহিনীর ব্রিফিং : শিববাড়ীর আস্তানায় ২ জঙ্গি নিহত, আরও আছে

জাতীয় ডেস্কঃ
সিলেটের শিববাড়ীতে আস্তানায় অপারেশন ‘টোয়াইলাইট’ অভিযানে অন্তত দুজন জঙ্গি মারা গেছেন বলে সেনাবাহিনী জানিয়েছে। আস্তানার ভেতরে আরো জঙ্গি থাকায় অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।
শিববাড়ীর পাঠানপাড়ার আতিয়া মহল ঘিরে অভিযানের তৃতীয় দিন রবিবার বিকালে এই পরিস্থিতি জানান সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান।
তিনি বলেন, ভেতরে অনেক জঙ্গি থাকায় অভিযানে বেশ ঝুঁকি রয়েছে। তাই এই অভিযান অব্যাহত থাকার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
এদিকে, তৃতীয় দিনেও শেষ হয়নি অভিযান। আজ রবিবার ফের সকাল থেকে বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাতটার দিকে প্রচণ্ড গোলাগুলি শুরু হয়। সকাল ১০টার দিকে দুটি এবং বেলা পৌনে ১২টার দিকে একটি শক্তিশালী বিস্ফোরণে পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে।
জানা গেছে, আতিয়া মহলে প্রবেশের প্রতিটি গেটে শক্তিশালী বিস্ফোরক লাগিয়ে রেখেছে জঙ্গিরা। ভবনের নিচতলায় অবস্থান করছে জঙ্গিরা। ভবনের নিচে বাঙ্কারে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও গোলাবারুদ নিয়ে তারা অবস্থান করছে। এতে করে ভবনের ভিতরে ঢুকতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। জঙ্গিরা এখন পর্যন্ত ১০টি গ্রেনেড ও ৫ থেকে ৬টি শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এছাড়া সিলেটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান প্রতিহত করতে জঙ্গিরা ভয়াবহ কৌশল নিয়েছে। একদল জঙ্গি আস্তানায়, আরেকদল বাইরে অবস্থান নিয়েছে। ইতোমধ্যে উত্সুক জনতার মধ্যে ঢুকে দুই দফা হামলা চালিয়েছে। এর আগে ৬ জন নিহত হয়। দুই র্যাব সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

সেনাবাহিনীর ব্রিফিং : শিববাড়ীর আস্তানায় ২ জঙ্গি নিহত, আরও আছে

আপডেট সময় ০৩:২৩:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মার্চ ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
সিলেটের শিববাড়ীতে আস্তানায় অপারেশন ‘টোয়াইলাইট’ অভিযানে অন্তত দুজন জঙ্গি মারা গেছেন বলে সেনাবাহিনী জানিয়েছে। আস্তানার ভেতরে আরো জঙ্গি থাকায় অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।
শিববাড়ীর পাঠানপাড়ার আতিয়া মহল ঘিরে অভিযানের তৃতীয় দিন রবিবার বিকালে এই পরিস্থিতি জানান সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান।
তিনি বলেন, ভেতরে অনেক জঙ্গি থাকায় অভিযানে বেশ ঝুঁকি রয়েছে। তাই এই অভিযান অব্যাহত থাকার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
এদিকে, তৃতীয় দিনেও শেষ হয়নি অভিযান। আজ রবিবার ফের সকাল থেকে বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাতটার দিকে প্রচণ্ড গোলাগুলি শুরু হয়। সকাল ১০টার দিকে দুটি এবং বেলা পৌনে ১২টার দিকে একটি শক্তিশালী বিস্ফোরণে পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে।
জানা গেছে, আতিয়া মহলে প্রবেশের প্রতিটি গেটে শক্তিশালী বিস্ফোরক লাগিয়ে রেখেছে জঙ্গিরা। ভবনের নিচতলায় অবস্থান করছে জঙ্গিরা। ভবনের নিচে বাঙ্কারে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও গোলাবারুদ নিয়ে তারা অবস্থান করছে। এতে করে ভবনের ভিতরে ঢুকতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। জঙ্গিরা এখন পর্যন্ত ১০টি গ্রেনেড ও ৫ থেকে ৬টি শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এছাড়া সিলেটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান প্রতিহত করতে জঙ্গিরা ভয়াবহ কৌশল নিয়েছে। একদল জঙ্গি আস্তানায়, আরেকদল বাইরে অবস্থান নিয়েছে। ইতোমধ্যে উত্সুক জনতার মধ্যে ঢুকে দুই দফা হামলা চালিয়েছে। এর আগে ৬ জন নিহত হয়। দুই র্যাব সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।