ঢাকা ০১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌদিতে নিহত আরিফের শোর্কাত পরিবারের পাশে মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন

মো: নাজিম উদ্দিনঃ

সৌদি আরবে দাম্মামে দুর্ঘটনায় নিহত আরিফের শোর্কাত পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন।

রোববার দুপুরে আরিফের মুরাদনগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের বাড়ীতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দেন মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।

ইউএনও কে দেখে আরিফের স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তাদের কান্নায় আকাশ ভারী হয়ে উঠে, এমন হৃদয় বিধারক পরিবেশে ইউএনও আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন।

20160925_143813

এসময় নিহত আরিফের লাশ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার দেওয়ার কথা বলেন ইউএনও। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আরিফের স্ত্রী রেহানা বেগম কে নগদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন এবং বিধবা ভাতা প্রদানের আশ্বস দেন। বিধাব ভাতা প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাকে আবু তাহেরকে নির্দেশ দেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো: মুমিনুল হক, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোসা: পারভীন আক্তার, সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন ও ইউপি সচিব কাজী তাজুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত শনিবার সৌদি আরবের দাম্মামের জলদিয়া এলাকায় একটি গভীর নলকূপ স্থাপনের সময় পাইপের ভেতরে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হন আরিফ (২৭)। অনেক খোঁজাখুঁজির পর সকাল এগারোটার দিকে বোরিংয়ের কাজে ব্যবহৃত মোটা পাইপের ভেতর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত আরিফ কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার চাপিতলা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের ছেলে।

ট্যাগস

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

সৌদিতে নিহত আরিফের শোর্কাত পরিবারের পাশে মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন

আপডেট সময় ০১:৩২:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬
মো: নাজিম উদ্দিনঃ

সৌদি আরবে দাম্মামে দুর্ঘটনায় নিহত আরিফের শোর্কাত পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন।

রোববার দুপুরে আরিফের মুরাদনগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের বাড়ীতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দেন মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।

ইউএনও কে দেখে আরিফের স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তাদের কান্নায় আকাশ ভারী হয়ে উঠে, এমন হৃদয় বিধারক পরিবেশে ইউএনও আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন।

20160925_143813

এসময় নিহত আরিফের লাশ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার দেওয়ার কথা বলেন ইউএনও। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আরিফের স্ত্রী রেহানা বেগম কে নগদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন এবং বিধবা ভাতা প্রদানের আশ্বস দেন। বিধাব ভাতা প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাকে আবু তাহেরকে নির্দেশ দেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো: মুমিনুল হক, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোসা: পারভীন আক্তার, সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন ও ইউপি সচিব কাজী তাজুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত শনিবার সৌদি আরবের দাম্মামের জলদিয়া এলাকায় একটি গভীর নলকূপ স্থাপনের সময় পাইপের ভেতরে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হন আরিফ (২৭)। অনেক খোঁজাখুঁজির পর সকাল এগারোটার দিকে বোরিংয়ের কাজে ব্যবহৃত মোটা পাইপের ভেতর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত আরিফ কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার চাপিতলা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের ছেলে।