ঢাকা ১১:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত

অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

সৌদি আরবের পশ্চিমাঞ্চলে জিজান প্রদেশে এক সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। সৌদি আরবস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জেদ্দা থেকে ৮০০ কিলোমিটার দূরে ইয়েমেন সীমান্তের কাছে অবস্থিত জিজান প্রদেশে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৭টার দিকে একটি ট্রাকে করে ২০ জন বাংলাদেশি শ্রমিক কর্মস্থলে যাওার পথে পেছন থেকে আরেকটি গাড়ি ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনার পরপর ঘটনাস্থলে ৮ জন মারা গেছে, গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর আরো দু’জন বাংলাদেশি মারা যায়।

দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনের জন্য জেদ্দা কনস্যুলেট থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কর্মকর্তা প্রেরণ করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি শ্রমিকদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয় সম্ভব হয়নি বলে জেদ্দা কনস্যুলেট সূত্র জানায়। নিহতদের পরিচয় পাওয়া গেলে পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে।

শাহীন শাজাহান নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি জানিয়েছেন, তার ভাই আমির হোসেনও রয়েছেন নিহতদের মধ্যে। আমির সৌদিআরবের আল ফাহাদ নামে একটি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। নিহত অন্যরাও একই কোম্পানির কর্মী। গতকাল সকালে কোম্পানির পিকআপে করে তারা মোট ২৭ জন কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। বিপরীত দিক থেকে আসা একটি গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে পিকআপটি উল্টে যায়।

জিজান রেড ক্রিসেন্টের মুখপাত্র বেইশি আল-সারকির বরাত দিয়ে রিয়াদ ডেইলি লিখেছে, উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে সাতজনের লাশ পায়। আরও ১৫ জনকে উদ্ধার করে পাঠানো হয় হাসপাতালে, যাদের মধ্যে ছয়জনের অবস্থা ছিল গুরুতর। পরে নিহতের সংখ্যা বেড়ে নয়জন হয় বলে শাহীন শাজাহান জানান।

আল ফাহাদ কোম্পানিতে কর্মরত ফরিদুল ইসলাম নিহতদের মধ্যে ছয় বাংলাদেশির নাম জানাতে পেরেছেন। এরা হলেন–সিরাগঞ্জের দুলাল, টাঙ্গাইলের সফিকুল, নারায়ণগঞ্জের মতিউর রহমান, নরসিংদীর আমির হোসেন ও হদয় এবং কিশোরগঞ্জের জসিম। এদিকে সৌদিআরবের আলহাসা কাতার রোডে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় বাদল (৩৬) নামে আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি টাঙ্গাইলে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত

আপডেট সময় ১২:৪৮:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৮
অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

সৌদি আরবের পশ্চিমাঞ্চলে জিজান প্রদেশে এক সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। সৌদি আরবস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জেদ্দা থেকে ৮০০ কিলোমিটার দূরে ইয়েমেন সীমান্তের কাছে অবস্থিত জিজান প্রদেশে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৭টার দিকে একটি ট্রাকে করে ২০ জন বাংলাদেশি শ্রমিক কর্মস্থলে যাওার পথে পেছন থেকে আরেকটি গাড়ি ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনার পরপর ঘটনাস্থলে ৮ জন মারা গেছে, গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর আরো দু’জন বাংলাদেশি মারা যায়।

দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনের জন্য জেদ্দা কনস্যুলেট থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কর্মকর্তা প্রেরণ করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি শ্রমিকদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয় সম্ভব হয়নি বলে জেদ্দা কনস্যুলেট সূত্র জানায়। নিহতদের পরিচয় পাওয়া গেলে পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে।

শাহীন শাজাহান নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি জানিয়েছেন, তার ভাই আমির হোসেনও রয়েছেন নিহতদের মধ্যে। আমির সৌদিআরবের আল ফাহাদ নামে একটি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। নিহত অন্যরাও একই কোম্পানির কর্মী। গতকাল সকালে কোম্পানির পিকআপে করে তারা মোট ২৭ জন কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। বিপরীত দিক থেকে আসা একটি গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে পিকআপটি উল্টে যায়।

জিজান রেড ক্রিসেন্টের মুখপাত্র বেইশি আল-সারকির বরাত দিয়ে রিয়াদ ডেইলি লিখেছে, উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে সাতজনের লাশ পায়। আরও ১৫ জনকে উদ্ধার করে পাঠানো হয় হাসপাতালে, যাদের মধ্যে ছয়জনের অবস্থা ছিল গুরুতর। পরে নিহতের সংখ্যা বেড়ে নয়জন হয় বলে শাহীন শাজাহান জানান।

আল ফাহাদ কোম্পানিতে কর্মরত ফরিদুল ইসলাম নিহতদের মধ্যে ছয় বাংলাদেশির নাম জানাতে পেরেছেন। এরা হলেন–সিরাগঞ্জের দুলাল, টাঙ্গাইলের সফিকুল, নারায়ণগঞ্জের মতিউর রহমান, নরসিংদীর আমির হোসেন ও হদয় এবং কিশোরগঞ্জের জসিম। এদিকে সৌদিআরবের আলহাসা কাতার রোডে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় বাদল (৩৬) নামে আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি টাঙ্গাইলে।