ঢাকা ০৯:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌদি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ইয়েমেনে যুদ্ধে নামছে নারীরা

অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিচ্ছে দেশটির নারীরা। দেশটির হুথি বিদ্রোহীদের নেতৃত্বে এসব নারী হাতে তুলে নিয়েছে রকেট লঞ্চার ও মেশিন গান। ২০১৭ সালে থেকেই সৌদির বিরুদ্ধে যুদ্ধে যোগ দেন ইয়েমেনি নারীরা। নতুন বছরে নারী যোদ্ধাদের রিক্রট আরও বাড়ছে। খবর আল আরাবিয়ার।

সম্প্রতি এক হাতে শিশু অন্য হাতে অস্ত্র উঁচিয়ে ইয়েমেনের রাজধানী সানার রাস্তায় হুথি বিদ্রোহীদের সমর্থনে মিছিল-সমাবেশে অংশ নেয় যোদ্ধা নারীদের একটি অংশ। এ সময় সৌদি জোটের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয় তারা। গত তিন বছর ধরে দেশটিতে আগ্রাসন চালিয়ে আসছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট।
আল আরাবিয়া জানায়, যুদ্ধে বহু ক্ষয়ক্ষতির পর যুদ্ধে নাম লেখাচ্ছে ইয়েমেনের নারীরা। নারী যোদ্ধাদের এই ব্যাটালিয়নের নাম আল-জয়নাবিয়াত। হুথি বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যমে সম্প্রতি এসব নারীর যুদ্ধ প্রশিক্ষণের বেশকিছু ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। এসব ভিডিওতে দেখা যায়, নারী যোদ্ধারা বিভিন্ন ধরনের ভারি অস্ত্র ব্যবহার করছে। সশস্ত্র ও সামরিক গাড়িও চালাচ্ছে তারা।

২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনের ওপর ভয়াবহ আগ্রাসন চালাচ্ছে সৌদি জোট। এর ফলে মধ্যপ্রাচ্যের দরিদ্রতম দেশটিতে চরম মানবিক সংকট তৈরি হয়েছে। এই মানবিক সংকটকে জাতিসংঘ বিশ্বের সবচেয়ে শোচনীয় বলে আখ্যায়িত করেছে। সৌদি জোটের বিমান হামলায় এ পর্যন্ত দেশটির প্রায় ১০ হাজার বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। জোটের পক্ষ থেকে দেশটির ওপর চাপিয়ে দেয়া হয়েছে অবৈধ অবরোধ। ফলে ব্যাপক খাদ্য সংকট ও দুর্ভিক্ষের কবলে পড়েছে দেশটি।

এছাড়া পানির অভাব ও দূষিত পানির কারণে দেখা দিয়েছে কলেরার মহামারি। এই মুহূর্তে দেশটির প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষের জরুরি ত্রাণ সহায়তার প্রয়োজন। কিন্তু অবরোধের কারণে সেখানে ত্রাণ সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

সৌদি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ইয়েমেনে যুদ্ধে নামছে নারীরা

আপডেট সময় ০৭:৩৪:৫৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৮
অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিচ্ছে দেশটির নারীরা। দেশটির হুথি বিদ্রোহীদের নেতৃত্বে এসব নারী হাতে তুলে নিয়েছে রকেট লঞ্চার ও মেশিন গান। ২০১৭ সালে থেকেই সৌদির বিরুদ্ধে যুদ্ধে যোগ দেন ইয়েমেনি নারীরা। নতুন বছরে নারী যোদ্ধাদের রিক্রট আরও বাড়ছে। খবর আল আরাবিয়ার।

সম্প্রতি এক হাতে শিশু অন্য হাতে অস্ত্র উঁচিয়ে ইয়েমেনের রাজধানী সানার রাস্তায় হুথি বিদ্রোহীদের সমর্থনে মিছিল-সমাবেশে অংশ নেয় যোদ্ধা নারীদের একটি অংশ। এ সময় সৌদি জোটের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয় তারা। গত তিন বছর ধরে দেশটিতে আগ্রাসন চালিয়ে আসছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট।
আল আরাবিয়া জানায়, যুদ্ধে বহু ক্ষয়ক্ষতির পর যুদ্ধে নাম লেখাচ্ছে ইয়েমেনের নারীরা। নারী যোদ্ধাদের এই ব্যাটালিয়নের নাম আল-জয়নাবিয়াত। হুথি বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যমে সম্প্রতি এসব নারীর যুদ্ধ প্রশিক্ষণের বেশকিছু ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। এসব ভিডিওতে দেখা যায়, নারী যোদ্ধারা বিভিন্ন ধরনের ভারি অস্ত্র ব্যবহার করছে। সশস্ত্র ও সামরিক গাড়িও চালাচ্ছে তারা।

২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনের ওপর ভয়াবহ আগ্রাসন চালাচ্ছে সৌদি জোট। এর ফলে মধ্যপ্রাচ্যের দরিদ্রতম দেশটিতে চরম মানবিক সংকট তৈরি হয়েছে। এই মানবিক সংকটকে জাতিসংঘ বিশ্বের সবচেয়ে শোচনীয় বলে আখ্যায়িত করেছে। সৌদি জোটের বিমান হামলায় এ পর্যন্ত দেশটির প্রায় ১০ হাজার বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। জোটের পক্ষ থেকে দেশটির ওপর চাপিয়ে দেয়া হয়েছে অবৈধ অবরোধ। ফলে ব্যাপক খাদ্য সংকট ও দুর্ভিক্ষের কবলে পড়েছে দেশটি।

এছাড়া পানির অভাব ও দূষিত পানির কারণে দেখা দিয়েছে কলেরার মহামারি। এই মুহূর্তে দেশটির প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষের জরুরি ত্রাণ সহায়তার প্রয়োজন। কিন্তু অবরোধের কারণে সেখানে ত্রাণ সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে।