ঢাকা ১১:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বাস্থ্যসম্মতভাবে কোরবানীর বর্জ্য অপসারণে ব্যাতিক্রমী প্রচারণায় মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন

মো: মোশাররফ হোসেন মনির:

আসন্ন ঈদুল আযহায় সুস্থ কোরবানীর পশু ক্রয়, যেখানে সেখানে পশু জবাই না করা, প্রশাসন কতৃক নির্ধারিত স্থানে কোরবানি, পশু জবাইয়ের আগে গর্ত করে নেওয়া সেই গর্তে রক্ত, গোবর ও পরিতেক্ত অংশ মাটি চাপা দেওয়া ও রোগ বিস্তার প্রতিরোধে স্বাস্থ্যসচেতনতায় নেমেছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর বাসষ্টেন্ড এলাকায় প্রজেক্টরের মাধ্যমে সচেতনতা মূলক নাটক প্রদর্শনের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের।

একই সাথে উপজেলার ২২টি ইউনিয়নের সকল বাজার ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় ঈদুল আযহা পর্যন্ত তা প্রচার করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সদর ইউপি সচিব রফিকুল ইসলাম, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা সুফি আহম্মেদ, শিক্ষক বাপ্পি চন্দ্র শিল, আজিজুর রহমান রনি, মোশাররফ হোসেন মনির, মাহবুব আলম আরিফ প্রমুখ।

কোরবানীর পশু জবাইয়ের সচেতন মূলক স্বচিত্র প্রতিবেধন দেখে সিএনজি ডাইভার জামাল মিয়া বলেন, ‘আগে আমি বাড়ির সামনেই কোরবানী করতাম। এখন ইউনো সাব (ইউএনও) আমার চোখ খোলে দিছেন। এবার গর্ত করে পশুর সকল বর্জ্য মাটি চাপা দিয়ে দিব। উপজেলা প্রশাসনের এ ধরনের মহত উদ্দেশ্য উপজেলার সর্ব মহলে বিষন ভাবে আলোচিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের জানান, সরকার জনকল্যাণে সবসময় জনগনের পাশে আছে সব বিষয়ে। তাই এবারের ঈদুল আযহায় পশু কোরবানী দিয়ে পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখুন রোগ প্রতিরোধে এগিয়ে আসুন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

স্বাস্থ্যসম্মতভাবে কোরবানীর বর্জ্য অপসারণে ব্যাতিক্রমী প্রচারণায় মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন

আপডেট সময় ১১:০৩:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩১ অগাস্ট ২০১৭
মো: মোশাররফ হোসেন মনির:

আসন্ন ঈদুল আযহায় সুস্থ কোরবানীর পশু ক্রয়, যেখানে সেখানে পশু জবাই না করা, প্রশাসন কতৃক নির্ধারিত স্থানে কোরবানি, পশু জবাইয়ের আগে গর্ত করে নেওয়া সেই গর্তে রক্ত, গোবর ও পরিতেক্ত অংশ মাটি চাপা দেওয়া ও রোগ বিস্তার প্রতিরোধে স্বাস্থ্যসচেতনতায় নেমেছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর বাসষ্টেন্ড এলাকায় প্রজেক্টরের মাধ্যমে সচেতনতা মূলক নাটক প্রদর্শনের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের।

একই সাথে উপজেলার ২২টি ইউনিয়নের সকল বাজার ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় ঈদুল আযহা পর্যন্ত তা প্রচার করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সদর ইউপি সচিব রফিকুল ইসলাম, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা সুফি আহম্মেদ, শিক্ষক বাপ্পি চন্দ্র শিল, আজিজুর রহমান রনি, মোশাররফ হোসেন মনির, মাহবুব আলম আরিফ প্রমুখ।

কোরবানীর পশু জবাইয়ের সচেতন মূলক স্বচিত্র প্রতিবেধন দেখে সিএনজি ডাইভার জামাল মিয়া বলেন, ‘আগে আমি বাড়ির সামনেই কোরবানী করতাম। এখন ইউনো সাব (ইউএনও) আমার চোখ খোলে দিছেন। এবার গর্ত করে পশুর সকল বর্জ্য মাটি চাপা দিয়ে দিব। উপজেলা প্রশাসনের এ ধরনের মহত উদ্দেশ্য উপজেলার সর্ব মহলে বিষন ভাবে আলোচিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলুল কাদের জানান, সরকার জনকল্যাণে সবসময় জনগনের পাশে আছে সব বিষয়ে। তাই এবারের ঈদুল আযহায় পশু কোরবানী দিয়ে পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখুন রোগ প্রতিরোধে এগিয়ে আসুন।