ঢাকা ০৫:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হোমনায় মাদকাসক্ত ছেলেকে জেলে দিলেন মা

হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনায় বখাটে ও মাদকাসক্ত ছেলে মো: আল আমিনকে (২৫) আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠিয়েছেন মা ছেনোয়ারা বেগম।

আল আমিন উপজেলার আছাদপুর ইউনিয়নের দড়িকান্দি গ্রামের ইরন মিয়ার ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়ে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আল আামিন একজন মাদকাসক্ত। সে দীর্ঘদিন যাবত বেপরোয়া জীবনযাপন করছে। নেশাসহ বিভিন্ন অপকর্মের টাকার জন্য তার মাসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের মারধর করত। পরিবারের সদস্যদের নানা কৌশলে জিম্মি করে তাদেরকে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করত। টাকা না দিতে পারলে নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দিত। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে আজ মঙ্গলবার এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে হোমনা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী শহিদুল ইসলাম তাকে উল্লেখিত সাজা দেন।

আল আমিনের মা ছেনোয়ারা বেগম জানান, তার বাবা ইরন মিয়া দীর্ঘদিন ধরে তাদের দুই ভাইসহ আমাকে ছেড়ে চলে যায়। আমি অনেক কষ্ট করে কোন রকম তাদেরকে বড় করেছি। এখন আল আমিনও নেশায় জড়িয়ে টাকার জন্য আমার ও তার ভাইয়ের ওপর নানা অত্যাচার শুরু করেছে। কোনো উপায় না দেখে থানায় অভিযোগ দেই।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

হোমনায় মাদকাসক্ত ছেলেকে জেলে দিলেন মা

আপডেট সময় ০৯:৫০:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৭
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনায় বখাটে ও মাদকাসক্ত ছেলে মো: আল আমিনকে (২৫) আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠিয়েছেন মা ছেনোয়ারা বেগম।

আল আমিন উপজেলার আছাদপুর ইউনিয়নের দড়িকান্দি গ্রামের ইরন মিয়ার ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়ে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আল আামিন একজন মাদকাসক্ত। সে দীর্ঘদিন যাবত বেপরোয়া জীবনযাপন করছে। নেশাসহ বিভিন্ন অপকর্মের টাকার জন্য তার মাসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের মারধর করত। পরিবারের সদস্যদের নানা কৌশলে জিম্মি করে তাদেরকে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করত। টাকা না দিতে পারলে নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দিত। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে আজ মঙ্গলবার এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে হোমনা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী শহিদুল ইসলাম তাকে উল্লেখিত সাজা দেন।

আল আমিনের মা ছেনোয়ারা বেগম জানান, তার বাবা ইরন মিয়া দীর্ঘদিন ধরে তাদের দুই ভাইসহ আমাকে ছেড়ে চলে যায়। আমি অনেক কষ্ট করে কোন রকম তাদেরকে বড় করেছি। এখন আল আমিনও নেশায় জড়িয়ে টাকার জন্য আমার ও তার ভাইয়ের ওপর নানা অত্যাচার শুরু করেছে। কোনো উপায় না দেখে থানায় অভিযোগ দেই।