ঢাকা ০৩:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হোমনা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনায় অগ্নিকান্ডে ব্যপক ক্ষয়-ক্ষতি সাধিত হয়েছে। আগুনে পাঁচটি দোকান ও মালামল সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়ে গেছে। এতে অন্তত পঞ্চাশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়েছে বলে দাবি করছেন ক্ষতিগ্রস্ত মালিকরা।
শুক্রবার রাত ২টা দশ মিনিটের দিকে উপজেলা সদর বাজারের পুরাতন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন দোকান-পাটে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। টের পেয়ে প্রথমে স্থানীয় জনতা আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ক্ষতিগ্রস্ত এ্যালুমিনিয়াম ব্যবাসায়ী আবদুস সামাদ জানান, তার দোকানের প্রায় দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল, মুদি দোকানের মালিক আ. লতিফ জানান, বিশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল, ফার্মেসী ব্যবসায়ী পুতুল জানান, পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ওষুধ, ভাই ভাই রেঁস্তোরা মালিক দিপক ঘোষ জানান, পাঁচ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ও আসবাবপত্র এবং একটি সেলুনের পঞ্চাশ হাজার টাকার আসবাবপত্রসহ মোট পঞ্চাশ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি সাধিত হয়েছে। হোমনা ইউএনও কাজী শহিদুল ইসলাম, মেয়র অ্যাড. নজরুল ইসলাম ও ওসি রসুল আহমেদ নিজামীসহ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ লিডার মো. আক্তারুজ্জামান নৈশ প্রহরী সুকুমারের বরাত দিয়ে জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকা-ের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নির্ণয় করা যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম বলেন, ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নির্ণয় করে ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আর্থিক সুবিধা পেতে সহযোগিতা করা হবে।

 

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

হোমনা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

আপডেট সময় ০৮:৪৭:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০১৬
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনায় অগ্নিকান্ডে ব্যপক ক্ষয়-ক্ষতি সাধিত হয়েছে। আগুনে পাঁচটি দোকান ও মালামল সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়ে গেছে। এতে অন্তত পঞ্চাশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়েছে বলে দাবি করছেন ক্ষতিগ্রস্ত মালিকরা।
শুক্রবার রাত ২টা দশ মিনিটের দিকে উপজেলা সদর বাজারের পুরাতন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন দোকান-পাটে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। টের পেয়ে প্রথমে স্থানীয় জনতা আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ক্ষতিগ্রস্ত এ্যালুমিনিয়াম ব্যবাসায়ী আবদুস সামাদ জানান, তার দোকানের প্রায় দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল, মুদি দোকানের মালিক আ. লতিফ জানান, বিশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল, ফার্মেসী ব্যবসায়ী পুতুল জানান, পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ওষুধ, ভাই ভাই রেঁস্তোরা মালিক দিপক ঘোষ জানান, পাঁচ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ও আসবাবপত্র এবং একটি সেলুনের পঞ্চাশ হাজার টাকার আসবাবপত্রসহ মোট পঞ্চাশ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি সাধিত হয়েছে। হোমনা ইউএনও কাজী শহিদুল ইসলাম, মেয়র অ্যাড. নজরুল ইসলাম ও ওসি রসুল আহমেদ নিজামীসহ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ লিডার মো. আক্তারুজ্জামান নৈশ প্রহরী সুকুমারের বরাত দিয়ে জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকা-ের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নির্ণয় করা যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম বলেন, ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নির্ণয় করে ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আর্থিক সুবিধা পেতে সহযোগিতা করা হবে।