ঢাকা ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৪০ আরোহী নিয়ে পাকিস্তানি বিমান বিধ্বস্ত

প্রবাস ডেস্ক রির্পোটঃ
কমপক্ষে ৪০ জন আরোহী নিয়ে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি বিমান দেশটির উত্তরাঞ্চলের বিধ্বস্ত হয়েছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে। পিআইএ’র দেয়া বিবৃতিতে বলা হয় ফ্লাইট পিকে-৬৬১ চিত্রাল থেকে ইসলামাবাদ আসার পথে কিছুক্ষণ আগে কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।
বিমানটি হাভেলিয়ানে পাকিস্তানের গোলাবারুদ ফ্যাক্টরির নিকটে পাটোলা গ্রামে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিমানটিতে ৪০ জনের বেশি যাত্রী ছিল। চিত্রাল বিমাবন্দর সূত্রের বরাত দিয়ে ডন জানিয়েছে, ওই বিমানে সংগীত শিল্পী জুনাইদ জামশেদ ও তার পরিবার, ডেপুটি কমিশনার উমর ওয়ারাইক বিমানে ছিলেন।
দেশটির বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমানটিতে ৪৭ জন যাত্রী ছিলেন। কিন্তু চিত্রালের পিআইএ কর্মকর্তা সোহাইল আহমেদ বলেন, বিমানটিতে চারজন ক্রুসহ ৪১ জন যাত্রী ছিলেন। এ ছাড়া বিমানে তিনজন বিদেশিসহ দুই শিশু, নয়জন নারী ও ৩১ জন পুরুষ যাত্রী ছিলেন।
স্থানীয় একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ডন জানিয়েছে, পাহাড়ি এলাকায় বিধ্বস্ত হওয়ায় পর বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। প্রায় সব যাত্রীই আগুনে পুড়ে যাওয়ায় তাঁদের শনাক্ত করা যাচ্ছে না। এ ছাড়া ঘটনাস্থলের চারদিকে বিমানটির ভগ্নাংশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।
বৈশ্বিক বিমান পরিবহন ওয়াচডগ অ্যাভিয়েশন হেরাল্ড জানিয়েছে, অ্যাবোটাবাদের নিকটে ইঞ্জিনের সমস্যার কারণে বিধ্বস্ত হয়েছে। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনী ও হেলিকপ্টার নিয়োজিত করা হয়েছে। ডন ও বিবিসি।
ট্যাগস

৪০ আরোহী নিয়ে পাকিস্তানি বিমান বিধ্বস্ত

আপডেট সময় ০২:২৩:১৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৬
প্রবাস ডেস্ক রির্পোটঃ
কমপক্ষে ৪০ জন আরোহী নিয়ে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি বিমান দেশটির উত্তরাঞ্চলের বিধ্বস্ত হয়েছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে। পিআইএ’র দেয়া বিবৃতিতে বলা হয় ফ্লাইট পিকে-৬৬১ চিত্রাল থেকে ইসলামাবাদ আসার পথে কিছুক্ষণ আগে কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।
বিমানটি হাভেলিয়ানে পাকিস্তানের গোলাবারুদ ফ্যাক্টরির নিকটে পাটোলা গ্রামে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিমানটিতে ৪০ জনের বেশি যাত্রী ছিল। চিত্রাল বিমাবন্দর সূত্রের বরাত দিয়ে ডন জানিয়েছে, ওই বিমানে সংগীত শিল্পী জুনাইদ জামশেদ ও তার পরিবার, ডেপুটি কমিশনার উমর ওয়ারাইক বিমানে ছিলেন।
দেশটির বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমানটিতে ৪৭ জন যাত্রী ছিলেন। কিন্তু চিত্রালের পিআইএ কর্মকর্তা সোহাইল আহমেদ বলেন, বিমানটিতে চারজন ক্রুসহ ৪১ জন যাত্রী ছিলেন। এ ছাড়া বিমানে তিনজন বিদেশিসহ দুই শিশু, নয়জন নারী ও ৩১ জন পুরুষ যাত্রী ছিলেন।
স্থানীয় একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ডন জানিয়েছে, পাহাড়ি এলাকায় বিধ্বস্ত হওয়ায় পর বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। প্রায় সব যাত্রীই আগুনে পুড়ে যাওয়ায় তাঁদের শনাক্ত করা যাচ্ছে না। এ ছাড়া ঘটনাস্থলের চারদিকে বিমানটির ভগ্নাংশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।
বৈশ্বিক বিমান পরিবহন ওয়াচডগ অ্যাভিয়েশন হেরাল্ড জানিয়েছে, অ্যাবোটাবাদের নিকটে ইঞ্জিনের সমস্যার কারণে বিধ্বস্ত হয়েছে। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনী ও হেলিকপ্টার নিয়োজিত করা হয়েছে। ডন ও বিবিসি।