ঢাকা ১১:৫৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেবিদ্বারে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলায় প্রতিবাদ সমাবেশ : বিভিন্ন সংগঠনের নিন্দা

মুরাদনগর বার্তা ডেস্ক রির্পোটঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলয় এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাদাঁবাজির অভিযোগে একটি হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে উপজেলার রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শরীরচর্চা শিক্ষক বর্তমানে নারী কেলেঙ্কারীর অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে প্রায় ৬মাস ধরে বরখাস্তে থাকা মোঃ রবিউল হাসান। মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানি করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও কুমিল্লা উত্তর জেলা সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন।

সোমবার কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একলক্ষ টাকা চাঁদাদাবীর অভিযোগ এনে রবিউল হাসান বাদী হয়ে দৈনিক যুগান্তরের দেবিদ্বার প্রতিনিধি মো: আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

সাংবাদিক আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানি করার প্রতিবাদে দেবিদ্বার সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের সকল সংবাদ কর্মীরা মঙ্গলবার বিকালে এক প্রতিবাদ সভা করে। ঐক্য ফোরাম’র সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংবাদিক আক্তার হোসেন’র বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা দায়েরে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে, নারী কেলেঙ্কারীর অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে প্রায় ৬মাস ধরে বরখাস্তে থাকা মোঃ রবিউল হাসানকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ তার ইন্দনদাতাদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান। আগামী ৭দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামারও হুমকী দেন সাংবাদিকরা।

এদিকে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন, মুরাদনগর উপজেলা প্রেস ক্লাব, মুরাদনগর প্রেস ক্লাব, মুরাদনগর প্রেস ইউনিয়ন, বাঙ্গরা বাজার থানা প্রেস ক্লাব, হোমনা উপজেলা প্রেস ক্লাব, হোমানা প্রেস ক্লাব, তিতাস উপজেলা প্রেস ক্লাবসহ কুমিল্লার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

এ ব্যাপারে মোঃ আক্তার হোসেন বলেন, ১নভেম্বর সকাল ১০টায় অভিযুক্ত শিক্ষককে মারধর কিংবা চাঁদাদাবীর কোন ঘটনাই সত্য নয়। নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে গত প্রায় ৩মাস পূর্বে শিক্ষক মোঃ রবিউল হাসান বিদ্যালয়ে এসে যথানিয়মে কার্যসম্পাদন করায় আমি পেশাগত দায়িত্ব পালনের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নিকট শুধু জানতে চেয়েছি নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক কর্মস্থলে কিভাবে কাজ করছেন। একই দিন অভিযুক্ত শিক্ষক রবিউলকে দেবিদ্বার থানা গেইট ‘সংলগ্ন অনন্ত জিডিটাল ষ্টুডিও’র সামনে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ’র সদস্য মোঃ হাসান ইমাম সহ অন্তত: ১৫/২০জন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তির উপস্থিতিতে বরখাস্ত স্বত্বেও বিদ্যালয়ে দায়িত্ব পালনের বিষয়টি জানতে চাই।

বিদ্যালয়টি সরকারী ঘোষনার পর সভাপতির নির্দেশ অমান্য করে একটি বিশেষ মহল ওই অভিযুক্ত শিক্ষককে পূনর্বহাল করার পায়তারার সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই এবং সংবাদ পরিবেশন করতে সাক্ষাৎ নিচ্ছিলাম। এছাড়া এস,এস,সি পরীক্ষার ফরম পুরনে অতিরিক্ত টাকা আদায় হচ্ছে মর্মে সম্প্রতি যে সংবাদ পরিবেশন করেছি তার তালিকায় রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম থাকায় প্রধান শিক্ষকসহ একটি মহল ক্ষুব্ধ ছিল। ধারণা করছি এসকল কারণেই আমার বিরোদ্ধে হয়রানী মূলক এ মামলাটি দায়ের হয়ে থাকতে পারে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

দেবিদ্বারে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলায় প্রতিবাদ সমাবেশ : বিভিন্ন সংগঠনের নিন্দা

আপডেট সময় ০২:৫৯:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০১৬
মুরাদনগর বার্তা ডেস্ক রির্পোটঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলয় এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাদাঁবাজির অভিযোগে একটি হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে উপজেলার রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শরীরচর্চা শিক্ষক বর্তমানে নারী কেলেঙ্কারীর অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে প্রায় ৬মাস ধরে বরখাস্তে থাকা মোঃ রবিউল হাসান। মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানি করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও কুমিল্লা উত্তর জেলা সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন।

সোমবার কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একলক্ষ টাকা চাঁদাদাবীর অভিযোগ এনে রবিউল হাসান বাদী হয়ে দৈনিক যুগান্তরের দেবিদ্বার প্রতিনিধি মো: আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

সাংবাদিক আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানি করার প্রতিবাদে দেবিদ্বার সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের সকল সংবাদ কর্মীরা মঙ্গলবার বিকালে এক প্রতিবাদ সভা করে। ঐক্য ফোরাম’র সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংবাদিক আক্তার হোসেন’র বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা দায়েরে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে, নারী কেলেঙ্কারীর অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে প্রায় ৬মাস ধরে বরখাস্তে থাকা মোঃ রবিউল হাসানকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ তার ইন্দনদাতাদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান। আগামী ৭দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামারও হুমকী দেন সাংবাদিকরা।

এদিকে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন, মুরাদনগর উপজেলা প্রেস ক্লাব, মুরাদনগর প্রেস ক্লাব, মুরাদনগর প্রেস ইউনিয়ন, বাঙ্গরা বাজার থানা প্রেস ক্লাব, হোমনা উপজেলা প্রেস ক্লাব, হোমানা প্রেস ক্লাব, তিতাস উপজেলা প্রেস ক্লাবসহ কুমিল্লার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

এ ব্যাপারে মোঃ আক্তার হোসেন বলেন, ১নভেম্বর সকাল ১০টায় অভিযুক্ত শিক্ষককে মারধর কিংবা চাঁদাদাবীর কোন ঘটনাই সত্য নয়। নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে গত প্রায় ৩মাস পূর্বে শিক্ষক মোঃ রবিউল হাসান বিদ্যালয়ে এসে যথানিয়মে কার্যসম্পাদন করায় আমি পেশাগত দায়িত্ব পালনের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নিকট শুধু জানতে চেয়েছি নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক কর্মস্থলে কিভাবে কাজ করছেন। একই দিন অভিযুক্ত শিক্ষক রবিউলকে দেবিদ্বার থানা গেইট ‘সংলগ্ন অনন্ত জিডিটাল ষ্টুডিও’র সামনে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ’র সদস্য মোঃ হাসান ইমাম সহ অন্তত: ১৫/২০জন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তির উপস্থিতিতে বরখাস্ত স্বত্বেও বিদ্যালয়ে দায়িত্ব পালনের বিষয়টি জানতে চাই।

বিদ্যালয়টি সরকারী ঘোষনার পর সভাপতির নির্দেশ অমান্য করে একটি বিশেষ মহল ওই অভিযুক্ত শিক্ষককে পূনর্বহাল করার পায়তারার সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই এবং সংবাদ পরিবেশন করতে সাক্ষাৎ নিচ্ছিলাম। এছাড়া এস,এস,সি পরীক্ষার ফরম পুরনে অতিরিক্ত টাকা আদায় হচ্ছে মর্মে সম্প্রতি যে সংবাদ পরিবেশন করেছি তার তালিকায় রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম থাকায় প্রধান শিক্ষকসহ একটি মহল ক্ষুব্ধ ছিল। ধারণা করছি এসকল কারণেই আমার বিরোদ্ধে হয়রানী মূলক এ মামলাটি দায়ের হয়ে থাকতে পারে।