ঢাকা ০৭:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেবিদ্বারে মাদক ব্যবসায়ী ও পুলিশের সংর্ঘষ:দুই পুলিশ আহত: আটক ২

শাহীন আলম : দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি :

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার রসুলপুরে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্যসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।

জানা যায় গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার সময় দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই)  আসাদুল ইসলাম’র নেতৃত্বে উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোর্শেদ আলম, এএসআই আবু হানিফ, এএসআই শামিমা আক্তার সহ একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রসুলপুর গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী শহিদের বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাদক ব্যবসায়ী শহিদ এবং তার স্ত্রী হেলেনা আক্তার পলায়নের চেষ্টা কালে পুলিশ তাদের আটক করেন। আটককৃতদের তল্লাশী করে শহীদ মিয়ার কাছ থেকে ২০০ (দুইশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং তার স্ত্রী হেলেনা বেগমের (৩৫) হাতে থাকা একটি বাজারের ব্যাগ থেকে ২০ (বিশ) বোতল ভারতীয় হুইস্কি উদ্ধার করেন।

পুলিশ ধৃত মাদক ব্যবসায়ী ও জব্দকৃত মাদক নিয়ে থানায় ফেরার সময় গোপালনগর নামক স্থানে আটককৃতদের সহযোগীরা সংঘবদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর হামলা করে আটককৃতদেরসহ জব্দকৃত মালামাল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। হামলায় (এসআই)  আসাদুল ইসলাম এবং এ.এস.আই আবু হানিফ মাথায় জখম প্রাপ্ত হয়।

মাদকদ্রব্য উদ্ধারের ঘটনায় (এসআই) আসাদুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে এজাহার দায়ের করে। ধৃত আসামী শহিদ একাধিক মাদক মামলার আসামী। পুলিশ আক্রান্তের ঘটনায় ধৃত দুই মাদক ব্যবসায়ী সহ তাহাদের সহযোগী ৪ আসামীর বিরুদ্ধে পৃথক এজাহার দায়ের করা হচ্ছে। পুলিশ আক্রান্তের ঘটনায় মামলা রুজু হওয়ার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সহিত জড়িত আরও এক আসামীকে গ্রেফতার করে। ধৃত আসামীদের অদ্য জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দেবিদ্বারে মাদক ব্যবসায়ী ও পুলিশের সংর্ঘষ:দুই পুলিশ আহত: আটক ২

আপডেট সময় ০২:২৮:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬
শাহীন আলম : দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি :

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার রসুলপুরে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্যসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।

জানা যায় গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার সময় দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই)  আসাদুল ইসলাম’র নেতৃত্বে উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোর্শেদ আলম, এএসআই আবু হানিফ, এএসআই শামিমা আক্তার সহ একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রসুলপুর গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী শহিদের বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাদক ব্যবসায়ী শহিদ এবং তার স্ত্রী হেলেনা আক্তার পলায়নের চেষ্টা কালে পুলিশ তাদের আটক করেন। আটককৃতদের তল্লাশী করে শহীদ মিয়ার কাছ থেকে ২০০ (দুইশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং তার স্ত্রী হেলেনা বেগমের (৩৫) হাতে থাকা একটি বাজারের ব্যাগ থেকে ২০ (বিশ) বোতল ভারতীয় হুইস্কি উদ্ধার করেন।

পুলিশ ধৃত মাদক ব্যবসায়ী ও জব্দকৃত মাদক নিয়ে থানায় ফেরার সময় গোপালনগর নামক স্থানে আটককৃতদের সহযোগীরা সংঘবদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর হামলা করে আটককৃতদেরসহ জব্দকৃত মালামাল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। হামলায় (এসআই)  আসাদুল ইসলাম এবং এ.এস.আই আবু হানিফ মাথায় জখম প্রাপ্ত হয়।

মাদকদ্রব্য উদ্ধারের ঘটনায় (এসআই) আসাদুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে এজাহার দায়ের করে। ধৃত আসামী শহিদ একাধিক মাদক মামলার আসামী। পুলিশ আক্রান্তের ঘটনায় ধৃত দুই মাদক ব্যবসায়ী সহ তাহাদের সহযোগী ৪ আসামীর বিরুদ্ধে পৃথক এজাহার দায়ের করা হচ্ছে। পুলিশ আক্রান্তের ঘটনায় মামলা রুজু হওয়ার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সহিত জড়িত আরও এক আসামীকে গ্রেফতার করে। ধৃত আসামীদের অদ্য জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।