ঢাকা ১১:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দাউদকান্দিতে একই রাতে চার বাড়িতে ডাকাতি

মুরাদনগর বার্তা ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট:

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে একই রাতে চার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতরা টাকা, স্বর্ণালংকা, মোবাইল ফোন, দামি কাপড়-চোপড়সহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় হাজী মুকবুল হোসেন (৫৫), সালেহা বেগম (৪৫) এবং কমলা বেগম (৬৫) আহত হন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমনার দিবাগত রাতে ঢাকা-কচুয়া সড়কের পাশে ইটাখোলা গ্রামের মৃত জাফর আলীর ছেলে ফারুক মিয়ার ঘরে প্রবেশ করে একদল ডাকাত। এ সময় ফারুক মিয়ার মা কমলা বেগম (৬৫) ডাকাতদের বাধা দিলে তাঁকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে ডাকাতদল। পরে ডাকাতদল পাশের জিংলাতলী গ্রামের প্রবাসী হাজী মকবুল হোসেনের বাড়িতে ডাকাতি করে। দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ডাকাতরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে গৃহকর্তা হাজি মুকবুল হোসেন ও তার স্ত্রী সালেহা বেগমের হাত-পা বেঁধে ঘরের একটি কক্ষে আটকে রাখে। এ সময় সালেহ বেগম চিৎকার দিলে তাঁকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে তারা। এক পর্যায়ে ডাকাতদল পাঁচ ভরি সোনা, ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, দামী কাপড়-চোপড় এবং ৫০ হাজার টাকাসহ ৬ লাখ টাকার মালামাল লুট করে। একই রাতে দক্ষিণ নগর গ্রামের মুন্সি বাড়িতে লনি মিয়া ও বাদশা মিয়ার ঘরে ঢুকে ডাকাতরা টাকাসহ প্রায় চার লাখ টাকার মালামাল লুট করে। আজ মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে গৌরীপুর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই মো. আসাদুজ্জামান আসাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কেউ মামলা করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

দাউদকান্দিতে একই রাতে চার বাড়িতে ডাকাতি

আপডেট সময় ০৮:৩৭:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৪

মুরাদনগর বার্তা ডটকম ডেস্ক রিপোর্ট:

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে একই রাতে চার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতরা টাকা, স্বর্ণালংকা, মোবাইল ফোন, দামি কাপড়-চোপড়সহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় হাজী মুকবুল হোসেন (৫৫), সালেহা বেগম (৪৫) এবং কমলা বেগম (৬৫) আহত হন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমনার দিবাগত রাতে ঢাকা-কচুয়া সড়কের পাশে ইটাখোলা গ্রামের মৃত জাফর আলীর ছেলে ফারুক মিয়ার ঘরে প্রবেশ করে একদল ডাকাত। এ সময় ফারুক মিয়ার মা কমলা বেগম (৬৫) ডাকাতদের বাধা দিলে তাঁকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে ডাকাতদল। পরে ডাকাতদল পাশের জিংলাতলী গ্রামের প্রবাসী হাজী মকবুল হোসেনের বাড়িতে ডাকাতি করে। দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ডাকাতরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে গৃহকর্তা হাজি মুকবুল হোসেন ও তার স্ত্রী সালেহা বেগমের হাত-পা বেঁধে ঘরের একটি কক্ষে আটকে রাখে। এ সময় সালেহ বেগম চিৎকার দিলে তাঁকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে তারা। এক পর্যায়ে ডাকাতদল পাঁচ ভরি সোনা, ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, দামী কাপড়-চোপড় এবং ৫০ হাজার টাকাসহ ৬ লাখ টাকার মালামাল লুট করে। একই রাতে দক্ষিণ নগর গ্রামের মুন্সি বাড়িতে লনি মিয়া ও বাদশা মিয়ার ঘরে ঢুকে ডাকাতরা টাকাসহ প্রায় চার লাখ টাকার মালামাল লুট করে। আজ মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে গৌরীপুর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই মো. আসাদুজ্জামান আসাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কেউ মামলা করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।